29 C
Kolkata

WB Civic Poll :উধাও পুরভোটের ‘বিতর্কিত’ প্রথম প্রার্থী তালিকা

নিজস্ব সংবাদদাতা : গত ২৮ জানুয়ারি ১০৭টি পুরসভার প্রার্থী তালিকা তৃণমূলের ফেসবুক পেজ থেকে প্রকাশ করা হয়। এরপরেই বিপত্তির সূত্রপাত। পুরভোটের প্রার্থী নিয়ে ব্যাপক বিক্ষোভ শুরু হয়েছিল। তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘনিষ্ঠ মহলে জানিয়েছিলেন নেটমাধ্যমে প্রকাশিত তালিকা সম্পর্কে তিনি কিছুই জানেন না, এমনটাই খবর সূত্রের। পরবর্তীতে খোদ নেত্রী স্পষ্ট করে জানান, দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও সুব্রত বক্সির নির্ধারিত তালিকাই চূড়ান্ত। খোদ পার্থও জানিয়েছিলেন কোনও প্রথম দ্বিতীয় তালিকা নেই।

পুরভোটের জন্য একটিই তালিকা।সংবাদমাধ্যমে পার্থ জানিয়ে দেন দলের ফেসবুক পেজে প্রকাশিত প্রার্থী তালিকা সঠিক নয়। কারণ ওই তালিকায় কোনও স্বাক্ষর নেই। এদিকে সেই তালিকা ঘিরে রাজ্যজুড়ে বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ শুরু হয়ে গিয়েছে। পরবর্তীতে আরও একটি তালিকা প্রকাশ করে তৃণমূল। তবে পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও সুব্রত বক্সির স্বাক্ষর-সহ। সঙ্গে দলের স্ট্যাম্পও। দুটি প্রার্থী তালিকাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়।

আরও পড়ুন:  আরও বিপাকে পার্থ -অর্পিতা, ED-র পর এবার জেরা করতে পারে CBI
আরও পড়ুন:  Saayoni Ghosh Covid Positive: করোনা কামড় সায়নী ঘোষকেও

জেলায় জেলায় তালিকা পাঠিয়ে বিষয়টি মেটানোর চেষ্টা হয়। কিন্তু তাতে বিরোধের নিষ্পত্তি হয়নি। ড্যামেজ কন্ট্রোলে ফিরহাদ হাকিম জানান, দলের ফেসবুক অ্য়াকাউন্টের অপব্যবহার করা হয়েছে। মুখে না বললেও ঠারেঠোরে আইপ্যাকের দিকেই আঙুল ছিল তাঁর। এই পরিস্থিতিতে শনিবারের বৈঠকের পর মুখ্যমন্ত্রী স্পষ্ট জানিয়ে দেন,

নেটমাধ্যমে নেতাদের ব্যক্তিগতভাবে কোনওরকম মতামত প্রকাশ করে দলকে অস্বস্তিতে ফেলা যাবে না। শেষমেশ সোশ্যাল মিডিয়ায় তৃণমূলের অফিশিয়াল ফেসবুক পেজ থেকে তুলে নেওয়া হল পুরভোটের জন্য নির্ধারিত বিতর্কিত প্রথম তালিকাটি। রবিবার সকালে আচমকাই দেখা যায় তৃণমূলের ফেসবুক এবং টুইটার হ্যান্ডেল থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে তালিকা।

Featured article