28 C
Kolkata

স্বজনপোষণের অভিযোগ নির্মল মাজির বিরুদ্ধে

নিজস্ব সংবাদদাতা : গত ১৫ ফেব্রুয়ারি শিক্ষক-চিকিত্সক পদে মোট ৬৪৭ জন প্রার্থীর তালিকা প্রকাশ করে হেলথ রিক্রুটমেন্ট বোর্ড।

সেখানে নির্মল মাজির ছেলে অমৃতেশ মাজি শুধুমাত্র এমবিবিএস পাশ হয়ে বাঙুর ইনস্টিটিউট অফ নিউরোলজিতে নিউরো মেডিসিন বিভাগের রেসিডেন্সিয়াল মেডিক্যাল অফিসার বা আরএমও হয়েছেন হয়েছেন বলে অভিযোগ।

কিন্তু অনেক পোস্ট ডক্টরাল ডিগ্রিধারীদের নাম ওঠেনি সেই তালিকায়। শুধু তাই নয়, নির্মল মাজির পুত্রবধূ অর্পিতা বাইন আলাদা আলাদা মেডিক্যাল কলেজের ১৩টি বিভাগে একসঙ্গে নিয়োগপত্র পেয়েছেন বলে অভিযোগ।

এই প্রসঙ্গে হেলথ রিক্রুটমেন্ট বোর্ডকে চিঠি দিয়েছে বামপন্থী চিকিত্সক সংগঠন ‘অ্যাসোসিয়েশন অফ হেলথ সার্ভিস ডক্টরস।’ তাদের বক্তব্য, এই ধরনের নজিরবিহীন দুর্নীতি এর আগে স্বাস্থ্য পরিষেবায় হয়নি। নিয়ম অনুযায়ী একজন একসঙ্গে একটি বিভাগেই আবেদন করতেন পারেন।

আরও পড়ুন:  NIA Raid West Bengal: দুর্নীতি দমনে পশ্চিমবঙ্গে এনআইএ
আরও পড়ুন:  Gold Price: মহালয়ার আগে ফের বড় খবর, দাম কমল সোনার, জানুন আজকের দর......

একাধিক বিভাগে আবেদন করলে তাঁর আবেদনপত্র বাতিল হয়ে যাওয়ার কথা। এরকম হলে অনেক ভাল চিকিত্সক রাজ্য ছেড়ে চলে যেতে পারেন।

তার প্রভাব রাজ্যের স্বাস্থ্য পরিষেবার উপরেই পড়বে। অভিযোগ প্রসঙ্গে হেলথ রিক্রুটমেন্ট বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রদীপ কুমার সুর জানিয়েছেন, শিক্ষক-চিকিত্সক পদে আবেদনের ন্যূনতম যোগ্যতা এমবিবিএস পাশ। আর কেউ চাইলে আলাদা আলাদা বিভাগে আবেদন করতেই পারেন।

কারণ প্রতিটি বিভাগের জন্য আলাদা ইন্টারভিউ হয়।

Featured article

%d bloggers like this: