33 C
Kolkata

East West Metro : ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো প্রকল্পে বাড়ল বরাদ্দ , কাজের গতি বাড়াচ্ছে রেল

নিজস্ব সংবাদদাতা : মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রেলমন্ত্রী থাকাকালীন কলকাতার সঙ্গে শহরতলির যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতিতে একের পর এক মেট্রো প্রকল্পের কাজ শুরু করেন। কিন্তু নানা কারণে সেই গতি কিছুটা শ্লথ হয়েছিল। তবে বছর দুয়েক ধরে রাজ্যের সহায়তায় মেট্রো প্রকল্পগুলোর কাজ ভালই এগোচ্ছে। তাই রেলমন্ত্রকও চাইছে কলকাতায় নির্মীয়মাণ মেট্রো প্রকল্পের কাজ শেষ করে দ্রুত পরিষেবা শুরু করতে। মঙ্গলবার বাজেট পেশ হলেও পিঙ্ক বুক প্রকাশ না হওয়ায় কোন প্রকল্পের ভাগ্যে কত অর্থ বরাদ্দ হয়েছে, তা জানা যায়নি।

তবে সূত্রের খবর, জোকা-বিবাদি বাগ এবং নিউ গড়িয়া-এয়ারপোর্ট প্রকল্পেও অর্থ বরাদ্দ গতবারের তুলনায় কিছুটা বাড়ছে। বরাদ্দ বাড়তে পারে নোয়াপাড়া-বারাসত প্রকল্পেও। কারণ এই প্রকল্পগুলির কাজের গতি বেশ ভালই। দেখা যাচ্ছে, ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো প্রকল্পে এবার বরাদ্দ হয়েছে ১১০০ কোটি টাকা। গতবারে এই প্রকল্পে বরাদ্দ হয়েছিল ৯০০ কোটি। হাওড়া ময়দান থেকে সেক্টর ফাইভ পর্যন্ত পরিষেবা দ্রুত চালু করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে মেট্রোর তরফে।

আরও পড়ুন:  পুজোর আগেই ফরেন্সিকে ল্যাবে নিয়োগ শুরুর নির্দেশ হাইকোর্টের
আরও পড়ুন:  Atin Ghosh : পুজোর আগে কেন পথে নামলেন অতীন ঘোষ ?

তাই প্রকল্পের কাজ করতে টাকা যাতে কোনও সমস্যা না হয় সেকারণেই এবার এই প্রকল্পে আরও বেশি টাকা বরাদ্দ হয়েছে বলে রেলবোর্ড সূত্রে খবর।গত বছর পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা নির্বাচনের আগে বাজেট পেশ হয়। সেখানে নোয়াপাড়া-বারাসত ৫২০ কোটি, , এয়ারপোর্ট-নিউ গড়িয়া ৩৫০ কোটি, জোকা-বিবাদী বাগ ৩৫০ কোটি,সেন্ট্রাল পার্ক-হলদিরাম ১০ কোটি টাকা বরাদ্দ হয়।

ইস্ট ওয়েস্ট মেট্রোয় হয় ৯০০ কোটি টাকা।আগে রেল বাজেট পেশের সময়ে জানা যেত প্রকল্পে বরাদ্দকৃত অর্থের পরিমাণ। কিন্তু এখন রেলের পিঙ্ক বুক প্রকাশ পাওয়ার পর জানা যাবে পরিমাণ। কোন প্রকল্প কত পাবে মঙ্গলবার দিনভর সেই আলোচনাতেই মগ্ন রইলেন মেট্রোভবনের কর্মীরা।

Featured article

%d bloggers like this: