29 C
Kolkata

#parthachatterjee: বেহালার সব পুজোয় ‘অসুর’ পার্থ!

নিজস্ব প্রতিবেদন: ইডি হেফাজতে নেওয়ার পর পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের থেকে দল দূরত্ব বাড়িয়েছে। মন্ত্রিত্ব এবং দলের পদ থেকেও সরিয়ে দেওয়া হয়েছে তাঁকে। এই একই পথে হাঁটল পার্থর এলাকার পুজো কমিটিগুলি। বেহালা থেকে ঠাকুরপুকুর, প্রায় ৭৫ শতাংশ পুজোর সঙ্গেই যুক্ত ছিলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। বেহালা পূর্ব ও পশ্চিম মিলিয়ে প্রায় ২০০টি দুর্গা পুজো হয়। বনমালী নস্কর রোডের বেহালা ক্লাবের প্রধান উপদেষ্টা পদে ছিলেন পার্থ। তাঁকে সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ক্লাব কর্তৃপক্ষ। বিধায়ক হওয়ার পর থেকে এই পদে ছিলেন তিনি। বেহালা নূতনদলের পুজোর সঙ্গেও অঙ্গাঙ্গীভাবে যুক্ত ছিলেন পার্থ। সেখান থেকেও তাঁকে সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এই ক্লাবের এক কর্মকর্তা জানান, ‘যে ঘটনা আমরা দেখছি, তাতে পার্থদাকে রাখা সম্ভব না।’ বড়িশা শীলপাড়া এলাকার উদয়ন পল্লির পুজো থেকেও বাদ পড়েছেন রাজ্যের বহিষ্কৃত মন্ত্রী। বেহালা দেবদারু ফটকের পুজোর এ বার সুবর্ণজয়ন্তী বর্ষ। এই কমিটির চেয়ারম্যান পদে বসেছিলেন পার্থ। এটি তৃণমূল বিধায়ক-অভিনেতা সোহম চক্রবর্তীর পাড়ার পুজো। এই কমিটিও ব্যতিক্রমী পথে হাঁটেনি।

আরও পড়ুন:  #sscscam: ব্রাত্যর সঙ্গে বৈঠকের পরও ধর্না অব্যাহত রাখার বার্তা চাকরিপ্রার্থীদের
আরও পড়ুন:  Durga Puja Kolkata: পুজোর আগেই শহরবাসীকে বড় উপহার দিচ্ছে রাজ্য

বড়িশা অঞ্চলের এক আবাসনের বড় পুজোয় প্রতি বছর অষ্টমীর ভোগ খেতে যেতেন পার্থবাবু। সভাপতি পদেও ছিলেন বিরাজমান। তবে এই ঘটনার পর তাঁকে রাখার ‘রিস্ক’ নিতেই চাইছে না কর্তৃপক্ষ। বেহালা পশ্চিম কেন্দ্রের পুজোর মধ্যেই থাকতেন পার্থ। কিন্তু ২০১৭ সালে বেহালা পূর্বের তৎকালীন বিধায়ক শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় এলাকা ছাড়ার পর সেখানেও যুক্ত হন পার্থ। এক যোগে প্রত্যেকটি কমিটি তাঁকে সরিয়ে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

Featured article