29 C
Kolkata

Gandhoraj Momo Memes: গন্ধরাজে একাকার ফেসবুক! মিমসের ঝড়ের পূর্বাভাস আবহাওয়া দপ্তরও দিতে পারেনি

নিজস্ব প্রতিবেদন: একটা কিছু হলেই হল। মিমের বন্যার পূর্বাভাস আবহাওয়া দপ্তরও দিতে পারে না। কিন্তু কী নিয়ে এবার হইচই শুরু হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়? ফেসবুক কাঁপাচ্ছেগন্ধরাজ। বেশকিছুদিন আগে সাউথ সিটি শপিং মলের (লর্ডসের মোড়) কাছে তৈরি হওয়া গন্ধরাজ মোমো খাওয়ার ধুম লেগে যায়। তারপরই শুরু হয় গন্ধরাজ চিকের রোলের কথা। ফেসবুকের নীল-সাদা ওয়াল মুহূর্তেই সবুজ হয়ে ওঠে। আর তারপরই শুরু হয় Memes এর ঝড়।

এই হল সেই বিখ্যাত গন্ধরাজ মোমো

কুণাল আরও একটি ছবি পোস্ট করেছেন, যা দেখে হাসতে হাসতে লুটোপুটি খাচ্ছে সবাই। রয়েছে গন্ধরাজ জাঙ্গিয়া!

ডিজিটাল ইলাস্ট্রেটর কুণাল বোসও মাউসের ছবি দিয়ে লিখেছেন ‘আমার গন্ধরাজ মাউস’।

অন্যদিকে, বিখ্যাত ইউটিউবার অর্ণব দাসের টেমপ্লেট ব্যবহার করেও চলেছে দেদার গন্ধরাজ মিমস।

কলকাতা কলটেলের পক্ষ থেকে ছবিটি পোস্ট করা হয়েছে- গন্ধরাজ রোল

কলকাতা কলটেলের পক্ষ থেকে ছবিটি পোস্ট করা হয়েছে- গন্ধরাজ জিলিপি।

কলকাতা কলটেলের পক্ষ থেকে ছবিটি পোস্ট করা হয়েছে- গন্ধরাজ দু’হাজার টাকা।

কলকাতা কলটেলের পক্ষ থেকে ছবিটি পোস্ট করা হয়েছে। যেখানে কলকাতার ঐতিহ্যবাহী হলুদ ট্যাক্সিকেও সবুজ করে ফেলা হয়েছে।

হানিকারক সানি আবার একটি গন্ধরাজ কোলাজ পোস্ট করেছে। যেখানে রয়েছে গন্ধরাজ বিরিয়ানি, গন্ধরাজ চিকেন ফ্রাই, গন্ধরাজ ফুচকা, গন্ধরাজ পিৎজা, গন্ধরাজ অমলেট এবং সব শেষে গন্ধরাজ চা!

কথায় বলে না, ‘হাদ পার কর দিয়া’- এবার হয়েছে ঠিক তাই। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সবুজ পাঞ্জাবি পরা ছবি নিয়েও শুরু হয়েছে গন্ধরাজ ট্রোলিং।

এবার নাকি গুগলও গন্ধরাজ ম্যাসেঞ্জার লিখলে whatsapp কে suggest করছে! সত্যিই কী তাই? আরে না না… সবুজ রঙের whatsapp logo বলে সেও মিমসের লিস্ট থেকে বাদ পড়েনি।

আরও পড়ুন:  আরও বিপাকে পার্থ -অর্পিতা, ED-র পর এবার জেরা করতে পারে CBI

Featured article