28 C
Kolkata

ফের মামলার জটে ডিএ

নিজস্ব সংবাদদাতা : হাইকোর্টে স্যাট রায় চ্যালেঞ্জ করল রাজ্য। ডিভিশন বেঞ্চে আপিল মামলার শুনানি ৩ ডিসেম্বর।২৩ সেপ্টেম্বর স্যাট রাজ্যের পুনর্বিবেচনা আবেদন খারিজ করে দেয়। সেই নির্দেশ চ্যালেঞ্জ করে ফের আইনি লড়াই হাইকোর্টে নিয়ে গেল রাজ্য। যার জেরে বিধানসভা ভোটের আগে বকেয়া ডিএ প্রাপ্তি কার্যত অসম্ভব মনে করছে সরকারি কর্মচারী সংগঠনগুলি। ২০১৯ সালের ২৬ জুলাই রাজ্য সরকারকে স্যাট নির্দেশ দিয়েছিল, পরবর্তী ছ’মাসের মধ্যে রাজ্য সরকারি কর্মীদের ডিএ দিতে হবে। রাজ্য সরকার তা না-দেওয়ায় সরকারি কর্মীদের সংগঠন স্যাটে আদালত অবমাননার মামলা দায়ের করে। রাজ্য পুনরায় স্যাটে রিভিউ পিটিশন দায়ের করে। গত ৩ মার্চ২০২০, রিভিউ পিটিশনের শুনানি শেষ হয়। তার রায় ঘোষণা হল।২০১৮ সালে কনফেডারেশন অফ স্টেট এমপ্লয়িজ পক্ষ থেকে স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইব্যুনালে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের মহার্ঘ ভাতা নিয়ে মামলা দায়ের করে। সেই মামলার শুনানি শেষে স্যাট জানিয়ে দিয়েছিল, মহার্ঘ ভাতা রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের অধিকার নয় , দয়ার দান। ওই রায়কে চ্যালেঞ্জ করে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয় কনফেডারেশন অফ স্টেট এমপ্লয়িজ। সেই মামলার শুনানিতে বিচারপতি দেবাশিস করগুপ্ত ডিভিশন বেঞ্চ রায় দিয়েছিলেন, রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের ডিএ তাদের অধিকার। তবে কি হারে তারা ডিএ পাবেন তা ঠিক করবে স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইবুনাল। বিচারপতি দেবাশিস করগুপ্ত রায়ের পুনর্বিবেচনা আর্জি জানায় রাজ্য সরকার। কিন্তু সেই আরজি খারিজ করে দেন বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডন ও বিচারপতি শেখর ববি সরফের ডিভিশন বেঞ্চ। এরপর স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইব্যুনালে ফের মামলা করে কনফেডারেশন অফ স্টেট এমপ্লয়িজ। স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইবুনাল গত ২৬ জুলাই ২০১৯ সালে রাজ্যের মুখ্যসচিবকে নির্দেশ দেন, কী হারে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের মহার্ঘ ভাতা দেবে, তা নীতি নির্ধারণ করতে।স্যাট রাজ্যকে নির্দেশ দিয়েছিল, কেন্দ্রীয় হারে দিতে হবে মহার্ঘ ভাতা। ষষ্ঠ বেতন কমিশনের আগেই সরকারি কর্মচারীদের ডিএ মিটিয়ে দিতে হবে। কিন্তু স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইব্যুনালের এই রায় রাজ্য সরকার কার্যকর না করায় রাজ্য সরকারের মুখ্যসচিবের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলা দায়ের করে সরকারি কর্মচারি সংগঠন।

আরও পড়ুন:  Dilip Ghosh: 'পাপের ফলে মুখ দিয়ে শুদ্ধ সংস্কৃত বেরোয় না', কাকে নিশানা করলেন দিলীপ ঘোষ ?
আরও পড়ুন:  Madan Mitra: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বললে দল ছাড়বেন মদন

Related posts:

Featured article

%d bloggers like this: