24 C
Kolkata

KOLKATA TAXI STRIKE: জরিমানা থেকে মুক্তি চাই!

শ্রাবণী পাল: ট্রাফিক জরিমানার কারণে বেশ কিছুদিন ধরেই প্রাইভেট বাস পেতে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছ। সরকারি পরিবহণের উপর নির্ভরতা বাড়ায় বাস ঠেসে যাচ্ছে ভিড়ে। তার উপর চড়া টিকিটের খরচও। একদিকে যেমন নাজেহাল হয়ে পড়ছে আম জনতা, পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধিতে দুর্ভোগ বাস, ট্যাক্সি চালকদেরও। তার উপর ২৬ জানুয়ারি থেকে বলবৎ হয়েছে নয়া ট্রাফিক জরিমানা। সব মিলিয়ে আর পথে নামানো যাচ্ছে না বাস, ট্যাক্সি। যার জেরে বৃহস্পতিবার শহরের একাধিক এলাকায় বিক্ষিপ্তভাবে চলছে ধর্মঘট। দুপুরের দিকে যানবাহনের এই জট আরও জোরালো হতে পারে।

কলকাতা হলুদ ট্যাক্সি
নিজস্ব চিত্র (শ্রাবণী পাল)

প্রায় ১০ শতাংশ জরিমানা বৃদ্ধি পেয়েছে কিছু কিছু ক্ষেত্রে। হলুদ ট্যাক্সি শহরে এখন হাতেগোনা। তার মধ্যে ফাইনের বোঝা আর নিতে পারছেন না চালকেরা। কীখবর-এর প্রতিনিধি কথা বললেন রাসবিহারী এভিনিউয়ের এক হলুদ ট্যাক্সি চালকের সঙ্গে। তাঁর বক্তব্য, ”রাস্তায় গাড়ি নামাতেই হবে জানি। কিন্তু এভাবে সম্ভব হচ্ছে না। যাত্রীরা ভাড়া বললে নেমে যাচ্ছেন। একটু কিছু হলেই এতো এতো টাকা ফাইন করছে পুলিশ। আমরা আজ তাই ধর্মঘট করছি।” ইতিমধ্যেই পার্কসার্কাস-সায়েন্সিটি রুটের কিছু বাস বন্ধ হয়েছে, আবার কিছু বাস সংখ্যা কমিয়ে দিয়েছে। OLA, UBER (গাড়ি, বাইক) ও খুব একটা বুকিং নিচ্ছে না। সব মিলিয়ে নাজেহাল অবস্থা সাধারণ মানুষের। যদিও বা কোনও ট্যাক্সি যাচ্ছে, সেগুলি খুব বেশি টাকা চাইছে। রাসবিহারী এভিনিউ থেকে পার্কসার্কাস যেতে প্রায় ৩০০-৪০০ টাকা চাইছে ট্যাক্সিগুলি। পরবর্তীকালে যদি কোনও ব্যবস্থা না নেওয়া হয়, তবে এই বিক্ষিপ্ত ধর্মঘট আরও দৃঢ় হবে।

আরও পড়ুন:  Weather Update: আজ শীতলতম দিন

Featured article

%d bloggers like this: