28 C
Kolkata

নারদাকাণ্ডে ফের তৃণমূলের নেতা-মন্ত্রীদের নোটিস ইডির

নিজস্ব সংবাদদাতা : নারদ কাণ্ডে তিন তৃণমূল নেতাকে নোটিশ পাঠাল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। আয়-ব্যয়ের তথ্য চেয়ে পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, হাওড়ার তৃণমূল সাংসদ প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায় এবং প্রাক্তন মন্ত্রী তথা তৃণমূল নেতা মদন মিত্রকে নোটিশ দেওয়া হয়েছে, দাবি সূত্রের।নারদকাণ্ডে অভিযুক্ত মুকুল রায় এখন তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে।

বর্তমানে তিনি দলের সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি। ইডি সূত্রে দাবি, মুকুল ইতিমধ্যেই নথিপত্র জমা দিয়েছেন। নারদ স্টিং অপারেশনে দেখা গিয়েছিল তত্কালীন তৃণমূল নেতা ও বর্তমানে বিজেপিতে যোগদানকারী শোভন চট্টোপাধ্যায়কেও। ইডি সূত্রে দাবি, এই সম্পর্কিত তথ্য দিয়েছেন শোভনের স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়। এর আগেও একাধিকবার নারদা কান্ডে সল্টলেক সিজিও কমপ্লেক্সে ইডি দফতরে হাজিরা দেন প্রাক্তন মেয়র পত্নী রত্না চট্টোপাধ্যায়।

প্রায় কয়েক ঘন্টা তাকে দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ করে ইডির তদন্তকারী আধিকারিকরা। অন্যদিকে কলকাতা পুরসভার মেয়র পদ থেকে পদত্যাগ করার পর শোভন চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, তাঁকে না জানিয়ে তার স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায় একটি কোম্পানি খুলেছে। সেই কোম্পানির নাম জিসিআর যার অর্থ গোপাল-চিকু- রত্না। আরেক অভিযুক্ত আইপিএস অফিসার এসএমএফ মির্জাও নথি দিয়ে সহযোগিতা করেছেন।

আরও পড়ুন:  TET Scam: চাকরিপ্রার্থীদের জন্য সুখবর, পুজোর আগেই টেট নিয়ে বড় নির্দেশ আদালতের
আরও পড়ুন:  Salt Lake Sanskritik Sansad & Sanmarg at Central Park : মহারাজের হাতে রাবনের বিনাশ

কিন্তু ইডি সূত্রে দাবি, এখনও আয়-ব্যায় সংক্রান্ত সম্পূর্ণ তথ্য দেননি ফিরহাদ, মদন, প্রসূনরা। সে কারণেই তাঁদের ফের নোটিস পাঠানো হয়েছে।অন্যদিকে নারদা কাণ্ডের পাশাপাশি রোজভ্যালি কাণ্ডেরও তদন্ত করছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। সূত্রের খবর, রোজভ্যালির প্রায় ৬ কোটি টাকার গাড়ি বাজেয়াপ্ত করতে চেয়ে বিশেষ আদালতে আবেদন জানিয়েছে কেন্দ্রীয় এই সংস্থা। বাজেয়াপ্ত হওয়া গাড়িগুলো বিক্রি করে, প্রতারিতদের টাকা ফেরাতে চাইছে ইডি।

Featured article

%d bloggers like this: