18 C
Kolkata

Park Circus: বিভীষিকাময় পার্ক সার্কাস! দিনেদুপুরে এলোপাথাড়ি গুলিতে মৃত ২

নিজস্ব প্রতিবেদন: শুক্রবার দুপুর প্রায় আড়াইটে নাগাদ আউট পোস্ট থেকে বেরিয়ে আসেন চোডুপ লেপচা। কাঁধে স্বয়ংক্রিয় রাইফেল। কড়েয়া থানা এলাকার লোয়ার রেঞ্জ রোড দিয়ে হাঁটতে হাঁটতে এগোতে থাকেন তিনি। রাইফেল হাতে নামিয়ে চালাতে থাকেন গুলি। লোয়ার রেঞ্জ রোড ধরে এপিসি রোডের দিকে আসছিল একটি অ্যাপ নির্ভর বাইক। চোডুপের গুলি গিয়ে লাগে বাইকের দুই আরোহীর গায়ে। পিছনের আসনে বসেছিলেন এক মহিলা। নাম হাওড়ার দাশনগরের বাসিন্দা রিমা সিংহ (২৮)। মাথা ফুঁড়ে বেরিয়ে যায় বুলেট। তড়িঘড়ি ন্যাশনাল মেডিকেল কলেজে নিয়ে গেলে জানা যায়, ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয়েছে তাঁর। গুলি লাগে কলিন স্ট্রিটের বাসিন্দা বশির ছোটেনের। জ্ঞানশূন্য হয়ে পড়েন তিনই। হাসপাতালে নিয়ে গেলে পরে তাকে বিপন্মুক্ত বলে জানানো হয়। এতেই থমকে থাকেনি এই বিভীষিকা। রাইফেল থেকে নিজেকেও গুলি করেন চোডুপ। কলকাতা পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার প্রবীন ত্রিপাঠী বলেন, ‘চোডুপ লেপচা সম্ভবত মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন। তিনি এলোপাথাড়ি গুলি চালিয়ে নিজেও আত্মঘাতী হলেন কি না, তা এখনও নিশ্চিত নয়।’

আরও পড়ুন:  SSKM : চিকিৎসার গাফিলতির কারণ ভাঙচুর এসএসকেএম

পার্ক সার্কাসে কলকাতা পুলিশের সশস্ত্র বাহিনীর সদস্য চোডুপ। খাস কলকাতায় হাড়হিম করা দুর্ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। মৃত পথযাত্রী রিমার মা জানিয়েছেন, ‘মেয়েটা সকাল ১২টা নাগাদ বেরল। কখন ফিরবি জিজ্ঞেস করলে বলেছিল সন্ধ্যা হবে। আর যে ফিরবে না তা বুঝতে পারিনি। দীর্ঘদিনের বন্ধুর সঙ্গে আজই বিয়ের দিন স্থির হতো।’ বাবার অবর্তমানে রিমাই সংসার চালাতেন। একমাত্র রোজগেরে সদস্যাও ছিলেন। গোটা পরিবার- পরিচিতরা এই মৃত্যুকে মেনে নিতে পারছে না।

Featured article

%d bloggers like this: