29 C
Kolkata

#parthachatterjeearrest: অর্পিতার সঙ্গে কিছুই ছিল না পার্থর! জিজ্ঞাসাবাদে পরিচয় খারিজ

নিজস্ব প্রতিবেদন: আদালতের নির্দেশ মতো ৪৮ ঘণ্টা অন্তর চলছে পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও অর্পিতার স্বাস্থ্য পরীক্ষা। শুক্রবার ইএসআই হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন প্রাক্তন মন্ত্রী-ঘনিষ্ঠ। মুখে কুলুপ ছিল পার্থবাবুর। এরপরই নগরদায়রা আদালতে তোলা হয় দু’জনকে। আদালতে জামিনের আবেদন জানানো হলে তা খারিজ হয়ে যায়। ইডির আর্জিতে সাড়া দিয়ে ১৪ দিনের জেল হেফাজত ঘোষণা করে আদালত। প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগারে থাকবেন পার্থ, আলিপুর মহিলা সংশোধনাগারে রাখা হবে অর্পিতাকে। এইদিনই নতুন সম্পত্তির হদিশ পান ইডি আধিকারিকরা। এমএস অনন্ত টেক্সফ্যাব প্রাইভেট লিমিটেড নামে একটি সংস্থার খোঁজ মিলেছে। যার শেয়ার হস্তান্তর করা হয়েছে পার্থ ও অর্পিতার আত্মীয়দের মধ্যে। আদালতের সঙ্গে কথোপকথনে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের আইনজীবী জানান, ‘পার্থর কাছ থেকে কিছু উদ্ধার করা হয়নি। উনি কোথাও পালিয়ে যাচ্ছেন না। উনি বিধায়ক পদ থেকেও ইস্তফা দেওয়ার কথাও ভাবছেন। উনি অসুস্থ। ওঁর বয়সও হয়েছে। এমসের রিপোর্টেও অসুস্থতার কথার উল্লেখ রয়েছে। উনি বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দিতেও রাজি।’

আরও পড়ুন:  Indian Museum : পার্কস্ট্রিট কাণ্ডে নয়া তথ্য
আরও পড়ুন:  Kolkata: মেট্রোয় এসি বন্ধ হতেই বিপত্তি

মুখোমুখি জেরায় অর্পিতাকে চিনতেনই না বলে ইডিকে জানান পার্থ। আধিকারিকদের প্রশ্ন, ‘আপনি কি অর্পিতাকে চেনেন?’ পার্থ বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। এরপরই পুজোর প্রসঙ্গ তুলে তিনি জানান, ‘নাকতলার পুজোতে দেখেছি।’ টাকা উদ্ধার প্রসঙ্গে পার্থর বয়ান, ‘এ বিষয়ে শুনেছি।’ ইডি সূত্রের দাবি, অর্পিতার একাধিক জীবন বিমায় নমিনি পার্থ। এই তথ্য পাওয়ার পরই মিনিস্ট্রি অব ফিন্যান্সের সঙ্গে যোগাযোগ করে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। এরপরই ইলেক্টনিক্স ডক্যুমেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের থেকে কিছু নথি বের করা হয়। যেখানে দেখা গিয়েছে, জীবন বিমা করার সময় অর্পিতা যে ফর্ম ফিল-আপ করেছিলেন তাতেও পার্থর নাম রয়েছে। সেখানেই পার্থর সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক আঙ্কেল বলে উল্লেখ করেছেন অর্পিতা। যদিও তাঁর পরিবারের সঙ্গে তৃণমূল বিধায়কের কোনও যোগাযোগ নেই বলেই জানা গিয়েছে। তাহলে ভাইঝির সম্পর্ক হল কীভাবে? খতিয়ে দেখছে ইডি।

আরও পড়ুন:  Gandhoraj Momo Memes: গন্ধরাজে একাকার ফেসবুক! মিমসের ঝড়ের পূর্বাভাস আবহাওয়া দপ্তরও দিতে পারেনি
আরও পড়ুন:  Gandhoraj Momo Memes: গন্ধরাজে একাকার ফেসবুক! মিমসের ঝড়ের পূর্বাভাস আবহাওয়া দপ্তরও দিতে পারেনি

Related posts:

Featured article