28 C
Kolkata

Tala Bridge : পুজোর আগেই ঢাকে কাঠি , উদ্বোধন হয়ে গেল টালা ব্রিজের

নিজস্ব প্রতিবেদন : সিঁথির মোড় থেকে উত্তর কলকাতায় আসতে এখন আর পেরোতে হবে না বেলগাছিয়া ব্রিজের যানজট। দীর্ঘ আড়াই বছরের অপেক্ষার অবসান। খুলে গেল তালা ব্রিজ। বৃহস্পতিবার নবনির্মিত সেই তালা ব্রিজ উদ্বোধন করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রিমোট উদ্বোধন করার পর তিনি বলেন,’ পুজোর আগে আগে এটা উপহার ‘। মেয়র ফিরহাদ হাকিম জানিয়েছেন, ‘ আগের চেয়ে অনেক বেশি মজবুত হয়েছে এই সেতু। কারণ, অত্যাধুনিক প্রযুক্তি কাজে লাগিয়ে তৈরী হয়েছে এই ব্রিজটি।’

পুজোর আগে এই ব্রিজটি খুলে যাওয়ার ফলে যানজট বেশ খানিকটা কমবে বলেই আশা করা যাচ্ছে। উত্তর কলকাতার ও শহরতলিতে যাওয়ার পথে এই টালা ব্রিজ বা হেমন্ত সেতু গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। ২০১৮ সালে মাঝের হাত ভেঙে পড়ার পর, ২০১৯ সালে সেতুটির স্বাস্থ পরীক্ষার পর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় টালা ব্রিজ ভেঙে নতুন করে নির্মাণ করা হবে। এবং ওই বছরই এপ্রিল মাসে সেই কাজ সম্পন্ন হয়। ৭৫০ মিটার লম্বা সেতুটি বানাতে মোট ব্যায় হয়েছে ৪৬৮ কোটি। কিন্তু সেতুটি দায়িত্বপ্রাপ্ত সংস্থার কর্মীদের মন্তব্যে একটা সংশয় থেকে যাচ্ছে মানুষের মনে। পুজোর আগে উদ্বোধন করতে গিয়ে কী একটু তাড়াতড়ি হয়ে গেল ? যদিও নবান্ন সূত্রের খবর, উদ্বোধনের পরে যান চলাচল নিয়ে যে সিদ্ধান্তই হোক। কিন্তু তা অব্যশই সেতুর স্বাস্থ্যের কথা ভেবে।

আরও পড়ুন:  Purulia: দীপাবলির আগেই পুরুলিয়া থেকে উদ্ধার নিষিদ্ধ বাজি

এদিকে, ব্রিজ উদ্বোধনের দিনেই বিক্ষোভ দেখায় এলাকার লোকেরা। সেতুর নীচেই বাস ছিল ওই বিক্ষোভকারীদের। তাঁদের অভিযোগ কাউন্সিলর পুনর্বাসনের কথা দিলেও রাখেনি। প্রায় ৩ বছর ধরে ১০০-১৫০ মানুষ খাল পারে দিন কাটাচ্ছে। ত্রিপল ঘেরা ঘরে ডোম বন্ধ হয়ে আসছে তাঁদের। তাই এদিন উদ্বোধনের আগে বিক্ষোভে নেমেছেন তাঁরা। যদিও কাউন্সিলরের দাবি ত্রিপল সরিয়ে ছাদ বানানো হবে।

আরও পড়ুন:  Saltlake: বেতন বাড়ানোর দাবিতে বিক্ষোভ অস্থায়ী বাস কর্মীদের, ভোগান্তিতে যাত্রীরা

Featured article

%d bloggers like this: