33 C
Kolkata

#MOMOচিত্তে: ঠেলাগাড়ির MOMOচিত্তে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে

শ্রাবণী পাল: সময়টা ছিল লকডাউনের,২০২০। অগুনতি চাকরিহারাদের মধ্যে ছিলেন মৌমিতাও। ঘর চালাতে ই এম বাইপাসের ধারে ঠেলাগাড়িটাই ছিল ভরসা। ছোট্ট একটা মোমো স্টিমার নিয়ে যাত্রার শুরুটাকে খোঁড়াক করেছিল অনেকে। তাতে যে কিছু যায় আসেনি তার প্রমাণ মিলল দু’বছর পর। বারুইপুর পদ্মপুকুর বন্ধন ব্যাংকের ঠিক বিপরীতে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে ‘MOMOচিত্তে‘। যা পশ্চিমবঙ্গের প্রথম মহিলা নেতৃত্বাধীন মোমো ব্র্যান্ড। দুপুর দু’টো থেকে রাত ন’টা অবধি খোলা দোকান।

বারুইপুরের MOMOচিত্তে

বাইপাসে দাঁড়িয়ে মোমো বিক্রির রাতটা মৌমিতার জন্য ভোলার মতো নয়। বাবা-মাকে শুনতে হয়েছিল, এত খরচ করে পড়ালেন রাস্তায় দাঁড়িয়ে মোমো বিক্রির জন্য? আজ সব প্রশ্নের উত্তর পেয়ে গেল ওঁরা। পাশে ছিল প্রিয় বন্ধু, যে বর্তমানে মৌমিতার স্বামী। রাত ১২টা পর্যন্ত অপেক্ষা করেছিল, যদি আর এক প্লেট বিক্রি হয়। প্রথম দিনে মাত্র ৩ ঘণ্টায় পাঁচশোর বেশি ক্রেতা এসেছে মোমোচিত্তে-তে। তবে শুধু পেট চালানোই লক্ষ্য ছিল না। বারুইপুরের ১০০জন মানুষকে অন্তত একজায়গায় নিয়ে আসাও স্বপ্ন ছিল তাঁর। চোখের সামনে স্বপ্ন পূরণ। খুশি গোটা পরিবার। তবে এই যাত্রাপথ আরও দীর্ঘ হোক, এটাই আশা মৌমিতার।

মহিলা পরিচালিত MOMOচিত্তে

Featured article

%d bloggers like this: