28 C
Kolkata

SSC Scam : এসএসসি নিয়ে কোন প্রশ্নের উত্তর খুঁজছেন সিবিআই ?

নিজস্ব প্রতিবেদন : নবম এবং দশম শ্রেণীর শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতির মামলায় সিবিআই হেফাজতে রয়েছেন এসএসসি প্রাক্তন উপদেষ্টা শান্তি প্রসাদ সিনহা। এই দুর্নীতি কাণ্ড এবার তাকে এবং প্রসন্ন রায়-সহ প্রদীপ সিংকে আলিপুর সিবিআই বিশেষ আদালতে পেশ করা হবে। কিভাবে হয়েছে এসএসসিরি দুর্নীতি তা নিয়ে সামনে এসেছে কিছু বিস্ফোরক তথ্য । আদালতে একটি মুখ বন্ধ সিরিয়াল রিপোর্ট পেশ করেছে তাতেই আছে একের পর এক রহস্য।

সিবিআই সূত্রে জানা গিয়েছে ২০১৯ সালে প্যানেল বাতিল হওয়ার পর কমিশনের ডিজিটাল সই ব্যবহার করা হয়েছিল। তারপর উপদেষ্টা কমিটির পরামর্শ মেনে নিয়োগপত্র তৈরি করা হয় । কিন্তু সেই উপদেষ্টা কমিটির সুপারিশপত্র পৌঁছনো হয় মাধ্যমিক শিক্ষা পরিষদের নিয়োগ সংক্রান্ত শাখায়।

আরও পড়ুন:  Primary TET : অবশেষে ঘোষিত হলে টেটের দিন

চাকরি-পাঠীদের নামের তালিকা যাচাই করার জন্য তা কোনও ওয়েবসাইটে আপলোড করা হয়নি। বরং বাতিল হওয়ার পর কমিশনের দায়িত্বে থাকা সেই শান্তি পোশাক রিজিওনাল কমিশন গুলির থেকে শূন্য পদের তালিকা সংগ্রহ করেন। সেই অনুযায়ী নিজের মতো করে সুপারিশপত্র তৈরি করে কল্যাণী গঙ্গোপাধ্যায়কে দেন তিনি। এরপর কল্যাণ ভবন নিয়োগ কত তৈরি করেন। কল্যান শুধু নিয়োগপত্র তৈরি করেননি। এসএসসি কর্মীদের মাধ্যমে সেগুলি পৌঁছে দেয়ার ব্যবস্থা করেন। যখন এই বেআইনি পদ্ধতিতে দুর্নীতি চলছিল তখন শিক্ষামন্ত্রী ছিলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। সুতরাং এই দুর্নীতির সঙ্গে তিনি যুক্ত হলেন। আর যেসব পাখিদের তালিকায় নাম ছিল না যারা অযোগ্য সেই সমস্ত প্রার্থীদের বিভিন্ন স্কুলে চাকরি পাইয়ে দিয়েছিলেন ।

আরও পড়ুন:  #TeachersDay: বিদ্যাসাগরের জন্মদিনে বাংলায় শিক্ষক দিবস ঘোষণার আর্জিতে সমর্থন

বর্তমানে যেই প্রশ্ন গুলির উত্তর খুঁজছেন সিবিআই ,

  • রিজনাল কমিশন কার চাপে বা কার প্রভাবে সেই তালিকা পাঠিয়েছিল?
  • প্যানেল বাতিল হওয়ার পরেও কার নির্দেশে শূন্যপদের তালিকা সংগ্রহ করে এসএসসি ?
  • আর শেষ হলো অ্যাড হোক কমিটি কে গঠন করে কল্যাণময় ছাড়া আর কে কে আছে এই কমিটিতে? এবং এই কমিটির আসল কাজ কি?
আরও পড়ুন:  Daily Horoscope 24 September, 2022 : আপনার রাশিতে কি আজ শনি দশা চলছে?

Featured article

%d bloggers like this: