25 C
Kolkata

LATA MANGESHKAR: ‘বিসর্জনটা যে এতোটা সত্যি হয়ে যাবে বুঝতে পারিনি’

শ্রাবণী পাল: সুরসম্রাজ্ঞীর প্রয়াণে শোকের ছায়া। শিল্পীদের প্রতিক্রিয়া নিল Keyখবর

তবলা বাদক বিক্রম ঘোষের প্রতিক্রিয়া: ”লতাজি ভারতের কিংবদন্তী শিল্পী। ২৫ হাজার গানের বিশাল ভাণ্ডারের নজির উনি রেখে গেলেন। এই নজির কয়েকশো বছরে আর কখনও হবে কি না তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। ওই গলার স্বরের তো অন্য কোনও উদাহরণ হয় না। তিন-চারটে প্রজন্ম ভারতীয় সঙ্গীতের সঙ্গে লতা মঙ্গেশকরকেই চেনে। এই ক্ষতি অপূরণীয়। মানুষকে তো একদিন যেতেই হবে। ওঁর সময়ে এই পৃথিবীতে আসতে পেরে সৌভাগ্যবান।”

সঙ্গীতশিল্পী শিলাজিৎ মজুমদার: ”কাল সরস্বতী পুজো ছিল, আজ বিসর্জন হল। আপামর বিশ্ববাসী জানে ওঁর সম্পর্কে, আমি আর আলাদা করে কি বলবো।”

(চন্দ্রবিন্দু ব্যান্ড) সঙ্গীতশিল্পী অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায়: ”বাকিদের মতো আমিও শোকস্তব্ধ। উনি শুধু গায়িকা নন, আমাদের জাতীয় কণ্ঠ।”

সঙ্গীতশিল্পী সপ্তক ভট্টাচার্য: ”বিশ্বের অন্ধকার দিন। দেশের প্রতীককে আজ আমরা হারিয়ে ফেললাম। এই শূন্যস্থান কোনওদিন পূর্ণ হবে না। ভারত বলতে নেতাজি, মহাত্মা গান্ধিকে আমরা বুঝি। আর ভারতীয় সঙ্গীত বলতেই ছিলেন লতা দিদি। উনি আজীবন গানের মাধ্যমে থেকে যাবেন।”

সঙ্গীতশিল্পী জুন ব্যানার্জি: ”সরস্বতী পুজোর দিন ভেন্টিলেশনে যেদিন গেলেন সেইদিনই মনটা খারাপ হয়ে গেল। উনি আমাদের মা সরস্বতীই থাকবেন। ছোট্ট থেকে তাঁকে শুনেই বড় হওয়া।”

(পৃথিবী ব্যান্ড) সঙ্গীতশিল্পী কৌশিক চক্রবর্তী: ”গোটা বিশ্বের সঙ্গীতজগতে আজ শোকের ছায়া। বিসর্জনটা যে এতোটা সত্যি হয়ে যাবে বুঝতে পারিনি। তাঁর সৃষ্টি আমাদের মধ্য দিয়ে থেকে যাবে। উনি যেখানেই থাকুন ভালো থাকুন। যে যে জনারে গান হয়, আজ সবাই এক হল। আমার ব্যান্ডের পক্ষ থেকে আত্মার শান্তি কামনা করি।”

সঙ্গীতশিল্পী বাম্পাই চক্রবর্তী: ”আমি ওঁরই গান শুনছিলাম। ভারতবর্ষের মা সরস্বতী চলে গেলেন।”

(কায়া ব্যান্ড) সঙ্গীতশিল্পী অরিন্দম চ্যাটার্জি: ”মৃত্যুটা খুব বাস্তব। সব জানলেও কোথাও মনে হয় এমন মানুষ যেন আজীবন থেকে যায়। তাঁর সৃষ্টিতে থেকে যাবেন তিনি। এতো ভাষায় গান, এতো মেলোডি যাঁর কণ্ঠে…সত্যিই একটা বড় ক্ষতি।”

আরও পড়ুন:  Rajabajar : রাজা বাজারে গাড়িতে আগুন

Featured article

%d bloggers like this: