33 C
Kolkata

ধর্মতলায় বাসের রেষারেষি, একটুর জন্য বাঁচল ৩সি/১ এর যাত্রীরা

শ্রাবণী পাল: কলকাতা পুরসভার একাধিক প্রচেষ্টার পরও শহরে আটকানো যাচ্ছে না বাসের অতিরিক্ত গতি। এমনই ঘটনার সাক্ষী থাকল রাত ৯টার ধর্মতলা। করোনা আবহে ভিড় কম নেই। রুবি (আনন্দপুর) থেকে নাগেরবাজার রুটের বাস একটুর জন্য বাঁচল দুর্ঘটনা থেকে। শুরু থেকেই ধীর গতিতে চলছিল বাসটি। তবে ভবানীপুরের আগে হঠাৎই গতি বাড়িয়ে রেষারেষি শুরু করে। তখনই ভয় পেয়ে যায় যাত্রীরা। কয়েকজন চিৎকারও করে ওঠে। এরপর সার্জেন্ট থাকার ভয়ে ফের ধীর গতিতে চালানো শুরু হয় চালকের।

৩সি/১ -এ চালকের সঙ্গে যাত্রীদের ঝামেলা

রবীন্দ্র সদনে পার করার পর গতি আবারও বাড়িয়ে দেন চালক। সামনে থাকা বাসটিকে ওভারটেক করতে গিয়ে সারিবদ্ধ লেডিস সিটে লাগে ধাক্কা। সঙ্গে সঙ্গে চালকের উপর চড়াও হন যাত্রীরা। আঙুল উচিয়ে তাঁকে জিজ্ঞেস করেন এক যাত্রী, “কী কারণে হঠাৎ তাড়া বেড়ে গেল আপনার? এতক্ষণ কেন আসতে চালাচ্ছিলেন?” একজন প্রশ্ন তোলেন, “যাত্রীদের জীবনের দাম নেই নাকি? নাটক চলছে এখানে?” থতমত খেয়ে যান চালকও। ঘাবড়ে যাওয়া মুখে উত্তর দেন, “ডানদিকে গাড়ি ছিল বলে চাপতে বাধ্য হয়েছি।” যদিও তাতে থামেননি ক্ষিপ্ত যাত্রীরা। কেউ কেউ গায়ে হাত দেওয়ার জন্যও এগিয়ে আসে। যাইহোক করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনে বাসের চাকা গড়ানো শুরু হয় স্বাভাবিক গতিতে। বড়সর কোনও দুর্ঘটনা হয়নি ঠিকই, কিন্তু রক্ষে কতদিন? জরিমানার আইনে পরিবর্তন এনে বাস্তবে কতটা মিটছে এই সমস্যা? তার দিকে প্রশাসনের নজর দেওয়ার একটু প্রয়োজন রয়েছে বলে মনে করছেন ওই বসে উপস্থিত কিছু যাত্রীও।

আরও পড়ুন:  School Teachers : পাঁচ বছরের লড়াইয়ের পর অবশেষে স্বস্তি, স্কুলে যোগ দিলেন শিক্ষকরা
আরও পড়ুন:  Subiresh Bhattacharya : উপাচার্য সুবীরেশ জেলেই থাকবেন আগামী ১০ দিন

Featured article

%d bloggers like this: