18 C
Kolkata

Gulam Nabi Azad: আজাদের সমর্থনে কংগ্রেস ছাড়ার হিড়িক

নিজস্ব প্রতিবেদন: দীর্ঘদিনের সম্পর্ক ছিন্ন করে কংগ্রেসের হাত ছাড়লেন প্রবীণ নেতা গুলাম নবি আজাদ। রাহুল গান্ধীকে বিঁধে কংগ্রেসের সমস্ত পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন। কংগ্রেস যে কাঠামো গড়ে তুলে দেশের মানুষের কাছাকাছি যেত, রাহুল দলের সেই কাঠামোই পুরোপুরি ভেঙে দেন’ বলে সোনিয়া গান্ধীকে ইস্তফা পত্রে লেখেন তিনি। এদিকে, আজাদকে সমর্থন করতে জম্মু-কাশ্মীরের ৫ নেতা পরপর কংগ্রেস থেকে ইস্তফা দিয়েছেন। যা কংগ্রেসের জন্য ফের বড় ধাক্কা বলেই মনে করা হচ্ছে।

প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা রাজ্যে দলের এক সময়ের বড় মুখ গুলাম নবি আজাদের কংগ্রেস থেকে ইস্তফা দেওয়ার পর থেকে জম্মু-কাশ্মীরে হাতছাড়া হওয়ার হিড়িক পড়ে গিয়েছে। তাঁকে সমর্থন জানিয়ে, আজাদের রাস্তায় হেঁটে কংগ্রেসের প্রাথমিক সদস্যপদ ছাড়লেন রাজ্যে দলের প্রাক্তন সহ সভাপতি জিএম সারোরি, হাজি আব্দুল রশিদ, মহম্মদ আমিন ভাট, গুলজার আহমেদ ওয়ানি, চৌধুরী মহম্মদ আক্রমের মত নেতারা। উপত্যকায় ক দিন আগে দলীয় সংগঠন ঢেলে সাজান কংগ্রেসের অন্তবর্তীকালীন সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী। গুলাম নবি আজাদ পন্থী নেতারা সেই দলীয় সংগঠন রদবদলে কোণঠাসা হয়ে পড়েছিলেন। তাই জল্পনা ছিলই, আজাদ কংগ্রেস ছাড়তে পারেন। এখন জোর চর্চা শুরু হয়েছে গুলাম নবি আজাদ ও তাঁর সমর্থকরা এবার কংগ্রেস ছেড়ে কোথায় যান।

আরও পড়ুন:  Suvendu Adhikari: ডায়মন্ড হারবারে সভা করার অনুমতি পেল বিরোধী দলনেতা

৭৩ বছরের আজাদের সঙ্গে বিজেপি-র বর্তমান নেতৃত্বের সম্পর্ক ভাল। এমনও জল্পনা একটা সময় হয়েছিল, গুলাম নবি আজাদকে বিজেপি রাষ্ট্রপতিও করতে পারে। যদিও সেই জল্পনা মেলেনি। গান্ধী পরিবারের বিরুদ্ধে বারবার তোপ দাগা আজাদ এবার পদ্মশিবিরে যোগ দেন তা হলে অবাক হওয়ার থাকবে না, বলে একাংশের ধারনা। তবে অনেকে বলছেন, জম্মু-কাশ্মীরের বর্তমানের মেরুকরণের রাজনীতিতে আজাদের বিজেপিতে যোগদান অত সহজ হবে না।

Featured article

%d bloggers like this: