28 C
Kolkata

দীর্ঘ সংগ্রামের জয়, ‘আরে’ থেকে সরছে মেট্রো কারশেড

নিজস্ব সংবাদদাতা : মুম্বইয়ের আরেতে ৮০০ একর জমি সংরক্ষিত অরণ্যই থাকছে। সরছে মেট্রো রেলের শেড। ঘোষণা করলেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। একটি ওয়েবকাস্টে উদ্ধব বলেন, ‘প্রকল্পটি কানজুরমাগে একটি সরকারি জমিতে স্থানান্তরিত হবে এবং এই কাজে কোনো বাড়তি ব্যয়ও হবে না। কারণ ‘জমিটি বিনামূল্যে পাওয়া যাবে’। একই সঙ্গে তিনি বলেন, আরে এলাকায় যে ভবনটি গড়ে তোলা হয়েছিল, তা জনসাধারণের জন্য অন্য কোনো কাজে ব্যবহার করা হবে। তাঁর কথায়, ‘প্রায় একশো কোটি টাকা ব্যয় করা হয়েছিল, তা জলে যাবে না’।রাজ্যের পরিবেশমন্ত্রী আদিত্য ঠাকরেও আরের গাছগুলি রক্ষার লড়াইয়ে অংশ নিয়েছিলেন। গতমাসে তিনি বলেছিলেন, ‘পরিবেশসংগ্রামীরা এই বিশ্বের ভবিষ্যতের জন্য লড়াই করছেন। বন বাঁচানোর পাশাপাশি আদিবাসী সম্প্রদায়ের অধিকারও রক্ষা করা হবে।’এ দিন সংরক্ষিত অরণ্য ঘোষণার পর আদিত্য টুইট করেন জানান, ‘আরে বাঁচল’! এই আরে অরণ্যের ২,৭০০ গাছ কেটে মেট্রো রেল প্রকল্প নির্মাণ করতে চেয়েছিল বিজেপি সরকার। গত সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে সেই নিয়ে চূড়ান্ত প্রতিবাদে জানান সমাজকর্মী থেকে সাধারণ মানুষ। পথে নামেন প্রতিবাদীরা। তাঁরা জানান, এই অরণ্যভূমি কাটলে হাজার হাজার পশু-পাখি আশ্রয়হীন হবেন। আদিবাসীরা উচ্ছেদ হবেন। জীবিকা হারাবেন। অক্টোবরে বম্বে হাইকোর্টও আরেকে অরণ্যের তকমা দিতে অস্বীকার করে। মুম্বই পুরসভার গাছ কাটার সিদ্ধান্তও সমর্থন করে। এর পর রাতের অন্ধকারে বুলডোজার চালানো হয় আরে অরণ্যে। আরে অরণ্যকে কেন্দ্র করে বিজেপি-র সঙ্গে মতবিরোধ হয় তত্কালীন শরিক দল শিবসেনার।বেশ কিছু গাছ কাটার সঙ্গে সঙ্গেই প্রতিস্থাপনের ব্যবস্থা করা হয়। কিন্তু বম্বে হাইকোর্টের নিয়োগ করা পর্যবেক্ষক জানান, প্রতিস্থাপিত গাছের অধিকাংশই মারা গিয়েছে। গত বছর মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীপদে শপথ নেওয়ার পর দিনই এই এলাকায় মেট্রো কারশেড প্রকল্পের কাজ বন্ধের নির্দেশ দেন শিবসেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরে। কয়েক বছর ধরে চলা এই প্রতিবাদ-আন্দোলন অবশেষে পরিণতি পাওয়ায় খুশি পরিবেশসংগ্রামীরা।

আরও পড়ুন:  Taj Mahal: 'তাজমহলের ৫০০ মিটারের মধ্যে কোনও ব্যবসায়িক কার্যকলাপ চলবে না', নির্দেশ শীর্ষ আদালতের
আরও পড়ুন:  Pluck Walnuts Risk: আহত একাধিক, তাকিয়ে দেখে না প্রশাসন

Related posts:

Featured article

%d bloggers like this: