21 C
Kolkata

Shraddha Walker Murder Case: শ্রদ্ধাকে খুন পূর্বপরিকল্পিত! চলছে আফতাবের পলিগ্রাফ পরীক্ষা

নয়াদিল্লি: একের পর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে আসছে শ্রদ্ধা ওয়াকার হত্যাকাণ্ডে। ঠাণ্ডা মাথায় কীভাবে অপরাধকে পরিণতি দিল আফতাব আমিন পুনাওয়ালা। বন্ধুমহল সূত্রে ইতিমধ্যে দাবি করা হয়েছে, অভিযুক্ত মাদক দ্রব্য অর্থাৎ ড্রাগ সেবন করত। এরপরই পলিগ্রাফ পরীক্ষায় পুলিশকে অনুমতি দিয়েছে সাকেত আদালত।৫ দিনের মধ্যে আফতাবের রোহিণী ফরেন্সিক ল্যাবে এই পরীক্ষা করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা নাগাদ আফতাবকে দিল্লির ফরেন্সিক সায়েন্স ল্যাবরেটরিতে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই শুরু হয় তার পরীক্ষানিরীক্ষা। ওই ল্যাবরেটরির ডিরেক্টর দীপা শর্মা সংবাদমাধ্যমে জানান, ‘ পরীক্ষা চলছে। ৬-৮ ঘণ্টা বা তার বেশি সময় লাগবে। পরীক্ষার পর ঠিক করা হবে ওর নারকো পরীক্ষা কবে হবে। এর থেকে বেশি তথ্য দেওয়ার অনুমতি নেই।’

আরও পড়ুন:  Toyota India: ভারতের Toyota-র স্তম্ভ পতন

কী এই পলিগ্রাফ পরীক্ষা? মূলত তদন্ত সংক্রান্ত বিষয়ে কিছু প্রশ্ন করা হবে আফতাবকে। অভিযুক্ত তার সত্যি বা মিথ্যে জবাব দিচ্ছে কি না সেই বিষয়ে পুলিশ জানতে পারবে একটি মেশিনের মাধ্যমে। মূলত উত্তরদাতার শারীরিক কিছু বিষয় ওই মেশিনের মাধ্যমে জানা যায়। যেমন পালস্, রক্তচাপ ইত্যাদি। এর মাধ্যমে স্পষ্ট হয়, সে সঠিক জবাব দিচ্ছে কি না। উল্লেখ্য, একাধিক বিষয়ের উত্তর দিতে গিয়ে পুলিশকেই বিভ্রান্ত করেছে অভিযুক্ত। এই পরীক্ষার মাধ্যমে পরিষ্কার হবে, শ্রদ্ধাকে খুন করা তার পূর্বপরিকল্পিত ছিল কি না। পুলিশের সন্দেহ, খুন করলেই নতুন ফ্ল্যাটে তাঁকে নিয়ে গিয়েছিল আফতাব।

Featured article

%d bloggers like this: