33 C
Kolkata

Assam: অসমে মৃত বেড়ে ৬২

নসকরা: বন্যার রোষ থেকে মুক্তি নেই। একের পর এক গ্রাম ডুবছে। জলের তলায় চলে যাচ্ছে বসতবাড়ি থেকে চাষের জমি। শুধু বাণভাসী নয়, ভূমিধসেও জর্জরিত অসম। ইতিমধ্যেই বন্যা এবং ধসে মৃত্যু হয়েছে ৬২ জনের (সরকারি হিসেব অনুযায়ী)। এতেই শেষ নয়, মেঘালয়ের পরিস্থিতিও দুর্বিষহ। ১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে ওই রাজ্যে। প্রায় ৪০ লক্ষ্যের কাছাকাছি মানুষ ঘরছাড়া। দেড় লক্ষের কাছাকাছি বন্যা বিধ্বস্তদের ৫১৪টি ত্রাণ শিবিরে ঠাই দিয়েছে প্রশাসন। বজলি, বক্সা, বরপেটা, গোয়ালপাড়া, কামরূপ, করিমগঞ্জ, লখিমপুর, মজুলি, নগাঁও, নলবাড়ি, শিবসাগরের মতো জায়গা সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে। অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মাকে ফোন করে খোঁজ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সবরকম সাহায্যের আশ্বাসও দিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন:  Flipkart-এ অর্ডার ছিল ল্যাপটপের, কিন্তু বাড়িতে যা এল.....

অন্যদিকে, চেরাপুঞ্জিতে শুক্রবারের বৃষ্টির পরিমাণ তৃতীয়বারের জন্য রেকর্ড গড়েছে। ১৯৯৮ সালের পর থেকে চেরাপুঞ্জিতে এত বৃষ্টি আর হয়নি। রাজ্যের মোট ৫টি মূল নদীর জল বইছে বিপদসীমার উপর দিয়ে। ৪ হাজার গ্রাম তলিয়ে গেছে। সরকারি ত্রাণ শিবিরে প্রচুর মানুষ আশ্রয় নিয়েছেন। সরকারি আধিকারিক, সংশ্লিষ্ট কর্মীরা বন্যা কবলিত এলাকায় ছোটখাটো ব্রিজ তৈরি করে অসহায় মানুষদের কাছে পৌঁছনোর চেষ্টা করছেন। ভারতীয় সেনা, দুর্যোগ মোকাবিলা বাহিনী এবং বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের কর্মীরা উদ্ধারকাজে নেমেছেন। চলছে ত্রাণবিলি।

আরও পড়ুন:  Jio: আনলিমিটেড রিচার্জে বড় ছাড় জিও-র

Featured article

%d bloggers like this: