28 C
Kolkata

দুর্নীতি মামলায় এবার ED-র নজরে সেনা সাংসদের স্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদন: মহারাষ্ট্রের রাজনৈতিক বিতর্ক যেন থামতেই চাইছে না। সম্প্রতি, আর্থিক তছরুপের অভিযোগে শিবসেনা সাংসদ সঞ্জয় রাউতকে গ্রেপ্তার করেছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। যা নিয়ে তোলপাড় রাজনৈতিক মহল। এবার, বেআইনি আর্থিক লেনদেন মামলায় সেনা সাংসদের স্ত্রী বর্ষা রাউতকে তলব করেছে ইডি। মুম্বইয়ের বিশেষ আদালত সঞ্জয় রাউতকে ৮ অগস্ট অবধি ইডি হেফাজতের নির্দেশ দেওয়ার কিছুক্ষণ পরই, তাঁর স্ত্রীকে তলবের বিষয়টি জানা গিয়েছে। তবে আবসন কেলেঙ্কারি মামলায় কবে শিবসেনা সাংসদের স্ত্রীকে হাজির হতে বলে হয়েছে, এখনও অবধি তা জানা যায়নি।

এদিন, সঞ্জয় রাউতকে আদালতে তোলা হলে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করেন শিবসেনা সাংসদ। তিনি বলেন, এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের আধিকারিকরা তাঁকে যে ঘরে রেখেছেন, সেখানে কোনও জানলা নেই। ওই ঘরে আলো, হাওয়া প্রবেশের কোনও রাস্তা নেই বলে অভিযোগ করেন সঞ্জয় রাউত। এদিকে সঞ্জয় রাউত যখন ইডির হেফাজতে, সেই সময় শিবসেনা সাংসদের স্ত্রী বর্ষা রাউতকেও সমন পাঠানো হয়। বর্ষা রাউতের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে কীভাবে লেনদেন হয়েছে, সেই তথ্য প্রকাশ্যে আসার পরই তাঁকে সমন পাঠানো হয়।

আরও পড়ুন:  Narayan Rane: বেআইনি নির্মাণ, কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর বাংলো ভেঙে দেওয়ার নির্দেশ হাইকোর্টের
আরও পড়ুন:  Indian Rupee : ক্রমশ পতনের পথে ভারতীয় মুদ্রার দাম

প্রায় চার মাস আগে মুম্বইয়ের গোরেগাঁওয়ের পত্র চউল পুনর্নির্মাণে ১ হাজার কোটি টাকা কেলেঙ্কারির অভিযোগে সঞ্জয় পত্নী বর্ষা রাউত ও সাংসদের ২ ঘনিষ্ঠ সহযোগীর ১১ কোটি টাকা সম্পত্তি সংযুক্ত করেছিল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। এই ১১ কোটি টাকা সম্পত্তির মধ্যে দাদরে বর্ষার নামের একটি ফ্ল্যাটও ছিল। পাশাপাশি স্বপ্না পাটকর নামে যৌথ মালিকানায় আলিবাগে ৮টি জমি ছিল বর্ষার। স্বপ্না শিবসেনা সাংসদের ঘনিষ্ঠ সহযোগী হিসেবে পরিচিত সুজিত পাটকরের স্ত্রী। স্বপ্না এই মুহূর্তে এই মামলার প্রধান সাক্ষী। স্বপ্না দাবি করেছিলেন তাঁকে খুন ও ধর্ষণের হুমকি দেওয়া হচ্ছে। যদিও গোটা বিষয়টি অস্বীকার করেছেন সাংসদ সঞ্জয় রাউত।

Featured article

%d bloggers like this: