29 C
Kolkata

Chief Justice: কে হবেন দেশের পরবর্তী প্রধান বিচারপতি ? নাম প্রস্তাব করলেন এনভি রামানা

নিজস্ব প্রতিবেদন: কে হবেন দেশের ৪৯তম প্রধান বিচারপতি ? এই নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই জল্পনা চলছিল। অবশেষে বৃহস্পতিবার প্রধান বিচারপতি এনভি রামানা দেশের পরবর্তী প্রধান বিচারপতি হিসাবে বিচারপতি উদয় উমেশ ললিতের নাম প্রস্তাব করলেন। আগামী ২৬ অগস্ট প্রধান বিচারপতি পদ থেকে অবসর গ্রহণ করবেন এনভি রামানা। তারপর দিনই ২৭ আগস্ট দেশের প্রধান বিচারপতি হিসাবে শপথ নেবেন উদয় উমেশ ললিত।

জানা গিয়েছে, কেন্দ্রীয় আইন মন্ত্রকের তরফে রামানার কাছে তাঁর উত্তরাধিকারী কে হবেন তা জানতে চাওয়া হয়। এরপরই এদিন ললিতের নাম প্রস্তাব করেন প্রধান বিচারপতি। ললিত এই পদে তিন মাস থাকবেন। অতি সম্প্রতি বিচারপতি ললিতের ঐতিহাসিক রায়ের মধ্যে ছিল তিন তালাক নিষিদ্ধ ঘোষণা করা। প্রধান বিচারপতির পদ অলঙ্কৃত করলে তিনিই দেশের দ্বিতীয় প্রধান বিচারপতি, যিনি বার থেকে একেবারে সর্বোচ্চ আদালতের বেঞ্চে উন্নীত হবেন। এর আগে সিকরি ১৯৭১ সাল থেকে ১৯৭৩ সময়কালে দেশের প্রধান বিচারপতির দায়িত্ব সামলেছিলেন। সুপ্রিম কোর্টে এখন যে বিচারপতিরা রয়েছেন, তাঁদের মধ্যে সবথেকে প্রবীণ হলেন ললিত। সাধারণত, সবচেয়ে বর্ষীয়ান যিনি বিচারপতি থাকেন, তিনিই প্রধান বিচারপতি হন। সেই হিসেবেও ললিতেরই রামানার স্থলাভিষিক্ত হওয়ার কথা।

আরও পড়ুন:  Accident: নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গভীর খাদে পর্যটকবাহী গাড়ি, মৃত ৭, আহত ১০
আরও পড়ুন:  Lawyer: জাল লাইসেন্স দেখিয়ে টানা ১৪ বছর কাজ, গ্রেপ্তার ভুয়ো আইনজীবী

১৯৫৭ সালের ৯ নভেম্বর জন্ম ইউ ইউ ললিতের। আইনজীবী হিসেবে তাঁর কর্মজীবন শুরু হয় ১৯৮৩ সালে, বম্বে হাইকোর্টে। ১৯৮৫ সাল পর্যন্ত সেখানে সাফল্যের সঙ্গে কাজ করার পর তিনি দিল্লি চলে আসেন। ২০০৪-এর এপ্রিলে তিনি সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী হিসেবে নিযুক্ত হন। ২জি স্পেকট্রাম মামলায় তাঁকে সিবিআইয়ের বিশেষ কৌঁসুলি হিসেবে নিয়োগ করা হয়েছিল। তাঁর আগে ১৯৭১ সালে দেশের ত্রয়োদশ প্রধান বিচারপতি হয়েছিলেন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি এস এম সিক্রি। তিনিও একেবারে আইনজীবী থেকে প্রধান বিচারপতির আসনে বসেছিলেন। আগামী ২৭ আগস্ট দেশের প্রধান বিচারপতির পদে শপথ নেওয়ার কথা ললিতের। ৮ নভেম্বর পর্যন্ত তিনি ওই পদে থাকবেন। তারপর অবসর নেওয়ার কথা তাঁরও।

Featured article

%d bloggers like this: