28 C
Kolkata

MAMATA BANERJEE DELHI: রাজধানীতে মমতা, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের সম্ভাবনা

নিজস্ব প্রতিবেদন: দু’দিনের দিল্লি সফরে গিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শনিবার দিল্লিতে বিচারপতিদের একটি অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে তাঁর। থাকবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও। বিচারপতিদের সংখ্যায় ঘাটতি নিয়ে আলোচনার ডাক দিয়েছেন তিনি। এছাড়া তাঁর রয়েছে একাধিক রাজনৈতিক কর্মসূচি রয়েছে। এরই মধ্যে মোদি-মমতার পৃথক বৈঠকের জল্পনাও দানা বাঁধছে রাজনৈতিক মহলে। যদিও মমতা শুক্রবার নবান্নে জানান, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের সম্ভাবনা নেই। ৩০ তারিখই আমায় ফিরে আসতে হবে। ”আমার এ বারে কোনও অ্যাপয়ন্টমেন্ট নেই। ঈদ, অক্ষয় তৃতীয়া রয়েছে।” সম্প্রতি জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে তরজায় জড়িয়েছিল কেন্দ্র-রাজ্য। করোনা পরিস্থিতি পর্যালোচনা বৈঠকে অ-বিজেপি রাজ্যগুলোকে পেট্রোপণ্যের উপর ভ্যাট কমাতে আবেদন করেন প্রধানমন্ত্রী। তার পাল্টা দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন্দ্রের থেকে রাজ্যের পাওনা অবিলম্বে মিটিয়ে দিতে সুর চড়ান তিনি। বিরোধী জোটকে ঐক্যবদ্ধ করতে বারবার রাজধানী যাওয়ার কথা বলেছেন তিনি। চলতি বছর জুলাইতেই রাষ্ট্রপতি নির্বাচন। বিজেপির বিরুদ্ধে সব দলকে এক হওয়ার ডাক আগেই দিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো। বিজেপিকে বাংলায় যেভাবে পর্যুদস্ত করেছেন, তা দেশে নজির গড়েছে। বিজেপি বাকি রাজ্যে জিতলেও, বাংলার গোহারা ফলাফল গেরুয়া নেতাদের মাথা নত করেছে। এখনই প্রকাশ্যে বলা যাচ্ছে না ঠিকই।

আরও পড়ুন:  Cow Smuggling: গরু পাচার কাণ্ডে এবার সায়গল হোসেনের মা ও স্ত্রীকে তলব ED-র
আরও পড়ুন:  Cow Smuggling: গরু পাচার কাণ্ডে এবার সায়গল হোসেনের মা ও স্ত্রীকে তলব ED-র

দিল্লির বিশেষ সূত্রের খবর, রাষ্ট্রপতি ভোটের অঙ্কের হিসাবে খাতায়-কলমে করার চেষ্টা চলছে। সর্বসম্মত বিরোধী প্রার্থী হলে বিজেপি-বিরোধী হাওয়া জোরদার করা যাবে। মনে করছে রাজনৈতিক মহল। য়দানে তৃণমূল, সমাজবাদী পার্টি, আরজেডি, আপ, ডিএমকে, কেসিআর, জনতা দলের একাধিক শাখা, শিবসেনা, এনসিপি-সহ একাধিক দল একমঞ্চে থাকবে। আলোচনা হবে কংগ্রেসের সঙ্গেও। ফলে সর্বসম্মত একজন বিরোধী প্রার্থী দাঁড় করানো যেতেই পারে। মমতার এই দিল্লি সফর সর্বসম্মত বিরোধী প্রার্থী দাঁড় করানোর সলতে পাকানো শুরু হলেও হতে পারে। শোনা যাচ্ছে, হার-জিতের ঊর্ধ্বে উঠে ঐক্যের বার্তা দেওয়ার জন্য এনসিপি নেতা শরদ পাওয়ার দাঁড়াতে পারেন। তিনি রাজি হলে বিরোধী শিবির তাঁকেই সামনে রেখে এগোবে। গোটা সমীকরণের ভরকেন্দ্র হবেন তৃণমূল সুপ্রিমো। দিল্লি গেলেই মমতা অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সঙ্গে দেখা করেন। যদিও বঙ্গে বিরোধী হিসেবে নিজেদের কার্যকলাপ শুরু করেছে আপ। কিন্তু বিজেপি বিরোধী জোটের মঞ্চে হাত ধরবে সব দলই। অন্যদিকে, অবশ্যই বিরোধী জোটের কাজ কতদূর এগোয় তা-ও নজরে থাকবে।

আরও পড়ুন:  Goa Tmc: সবচেয়ে বেশি খরচ করেও গোয়ায় জয় অধরা তৃণমূলের
আরও পড়ুন:  Terrorists Arrest: বড় সন্ত্রাসী ছক বানচাল, সীমান্ত থেকে গ্রেপ্তার দুই হাইব্রিড জঙ্গি

Related posts:

Featured article

%d bloggers like this: