28 C
Kolkata

Indepenence Day: স্বাধীনতা দিবসে তেরঙ্গা আলোয় সাজবে না তাজমহল, জানেন কেন?

নিজস্ব প্রতিবেদন: ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে দেশজুড়ে উদযাপিত হচ্ছে স্বাধীনতার ‘আজাদি কা অমৃত মহোৎসব’। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আবেদনের ভিত্তিতে সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইলের ডিপিও বদলে তিরঙ্গা করা হচ্ছে। বাড়িতে বাড়িতে চলছে পতাকা উত্তোলনের প্রস্তুতি। পাশাপাশি, এই বিশেষ উদযাপনে দেশের সমস্ত ঐতিহাসিক স্থাপত্যগুলিকে তেরঙ্গা আলোয় সজ্জিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। তবে, তাজমহল সাজবে না তেরঙ্গা আলোকসজ্জায়। কারণ, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী, রাতে কোনওরকম আলোকসজ্জা করা যাবে না তাজমহলে। স্বভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে, তাজমহলের ক্ষেত্রে কেন এই নিয়ম ?

সামাজিক কর্মী বিজয় উপাধ্যায়ের মতে, বিখ্যাত পিয়ানোবাদক ইয়ানির একটি অনুষ্ঠান চলাকালীন তাজমহলকে শেষ বার রাতে আলোকিত করা হয়েছিল ২০ মার্চ ১৯৯৭ সালে। পরের দিন সকালে, দেখা গিয়েছিল তাজমহল মৃত পোকামাকড়ে ভরে গিয়েছে। যার পরে ভারতের প্রত্নতাত্ত্বিক জরিপ বিভাগের রাসায়নিক শাখা সুপারিশ করে যে, মার্বেলকে চকচকে রাখতে চাইলে তাজমহলে রাতে আলো না জ্বালানোই শ্রেয়। কারণ কীটপতঙ্গগুলি স্মৃতিস্তম্ভের মার্বেলের ক্ষতি করে। তাজে আলো জ্বালানোর উপর নিষেধাজ্ঞা তখন থেকে আর প্রত্যাহার করা হয়নি। যদিও আজকাল অনেক ভাল আলোর বিকল্প পাওয়া যায়।

আরও পড়ুন:  Fire: বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ড হাসপাতালে, ঝলসে মৃত্যু চিকিৎসক সহ দুই শিশুর
আরও পড়ুন:  cheetahs: শীঘ্রই ভারতের মাটিতে পা রাখবে আরও চিতা

‘আজাদি কা মহোৎসব’ উপলক্ষে নানাবিধ অনুষ্ঠান, নাচ-গান, বিভিন্ন শোভাযাত্রা, সম্প্রদায়ের উত্‍সব এসব কিছু তুলে ধরার কাজ চলছে। এর আগে প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীকে ২ থেকে ১৫ অগস্ট পর্যন্ত সোশাল মিডিয়া প্রোফাইলে ভারতের জাতীয় পতাকার ছবি লাগানোর আবেদন জানিয়েছিলেন। অন্যদিকে, এই মহোৎসবে কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে গোটা দেশে ছড়িয়ে থাকা স্মৃতিসৌধে সমস্ত পর্যটক এবং দর্শনার্থীদের বিনামূল্যে প্রবেশের সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়েছে। এই সুযোগ পাওয়া যাবে ৫ থেকে ১৫ আগস্ট পর্যন্ত। আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়ার অধীনে থাকা মোট সাড়ে তিন হাজার স্থান দর্শনে মিলবে এই সুযোগ। সেই তালিকায় রয়েছে তাজমহলও।

Featured article

%d bloggers like this: