24 C
Kolkata

বাজেট অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির ভাষণ বয়কট

নিজস্ব সংবাদদাতা : রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন যতই এগিয়ে আসছে ততই তীব্র থেকে তীব্রতর হচ্ছে তৃণমূল-বিজেপির রাজনৈতিক যুদ্ধ । আর তৃণমূল-বিজেপি-র যুযুধান হওয়ার ফলে এর সার্বিক প্রভাব পড়েছে কেন্দ্র-রাজ্য সম্পর্কেও।

বাজেট অধিবেশনে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের ভাষণে সংসদে হাজির না থেকে কৃষক আন্দোলনের পক্ষে সমর্থন জানিয়ে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করে দিল তৃণমূল। এই ঘটনা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সরকারকে তৃণমূলের হুঁশিয়ারি বললেও ভুল হবে না।

কৃষি আইনের বিরোধিতা করে সংসদের বাজেট অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির ভাষণ বয়কট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তৃণমূল। শুধু তৃণমূল নয়। দেশের ১৬টি বিরোধী দল এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই মর্মে একটি লিখিত বিবৃতিও প্রকাশ করেছে ।

সেই বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, কৃষি আইন নিয়ে এখনও পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন প্রান্তের ১৫৫ জন কৃষক প্রতিবাদ জানাতে গিয়ে মারা গিয়েছেন। দেশের কৃষকেরা কেন্দ্রীয় সরকারের আনা কৃষি আইন কিছুতেই মানতে চান না।

আরও পড়ুন:  Shraddha Walker Murder Case: শ্রদ্ধাকে খুন পূর্বপরিকল্পিত! চলছে আফতাবের পলিগ্রাফ পরীক্ষা

কিন্তু সরকার একরোখা ভাবে কৃষকদের আন্দোলনকে দমন করার যে নীতি গ্রহণ করেছ তা নিন্দনীয়। বিবৃতিতে তৃণমূলের তরফে নাম রয়েছে লোকসভার দলনেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় ও রাজ্যসভার দলনেতা ডেরেক ও’ব্রায়েনের।

তৃণমূল ছাড়াও কংগ্রেস, এনসিপি, ন্যাশনাল কনফারেন্স, ডিএমকে, শিবসেনা, সমাজবাদী পার্টি, আরজেডি, সিপিএম, সিপিআই, আইইউএমএল, আরএসপি, পিডিপি, এমডিএমকে, কেরল কংগ্রেস (এম) ও এআইইউডিএফের মতো রাজনৈতিক দলগুলিও রাষ্ট্রপতির বক্তৃতা বয়কট করবে বলে জানিয়ে দিয়েছে।

Featured article

%d bloggers like this: