18 C
Kolkata

আগরতলা পৌঁছলেন ব্রাত্য-মলয়-ঋতব্রতরা

নিজস্ব সংবাদদাতা : নির্বাচনের আগে স্ট্র‍্যাটেজি সাজাতে ভোট কুশলের পেশাদার সংস্থা I-PAC এর ২৩ জন সদস্য ত্রিপুরায় গিয়ে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে গিয়ে ‘আটক’ হয়ে পড়েন হোটেলেই৷ এই ঘটনার নেপথ্যে তৃণমূল বিরোধীদের যোগের অভিযোগ এনে বুধবার ব্রাত্য বসুর নেতৃত্বে তৃণমূলের তিন প্রতিনিধি দল কলকাতা থেকে ত্রিপুরা পৌঁছলেন ।

এদিন তাঁরা বিমানবন্দরে নামতেই স্লোগান ওঠে তৃণমূল কর্মী-সমর্থকদের। সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী মলয় ঘটক বলেন, ‘আমরা রাজনৈতিক কারণেই এখানে এসেছি। আমাদের দলের কর্মীরা বাইরে অপেক্ষা করছেন, আমরা তাঁদের সঙ্গে কথা বলব। বিধানসভা নির্বাচনের পর থেকেই গণতন্ত্র স্তব্ধ ত্রিপুরায়। এখানে বহু পার্টি অফিস জ্বালানো হয়েছে, অনেককে খুন করা হয়েছে ।

আমরা অত্যাচারিত মানুষের পাশে দাঁড়াতে এসেছি।’ রবিবার রাতে আগরতলার হোটেলে গিয়ে আইপ্যাক সদস্যদের সঙ্গে দেখা করে পুলিস। তাঁদের নথিপত্র খতিয়ে দেখা হয়। এরপর সোমবার সকালে যখন গ্রাউন্ড রিসার্চের জন্য হোটেল থেকে বেরোচ্ছিলেন আই প্যাক টিমের সদস্যরা, তখন পুলিস বাধা দেয় বলে অভিযোগ। সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়, নথিপত্র খতিয়ে দেখার কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত হোটেলেই থাকতে হবে।

আরও পড়ুন:  Gujrat: সিলিন্ডার পিছনে বেঁধে ভোট দিতে গেলেন বিজেপি বিধায়ক

শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু বলেছেন , “ওদের সঙ্গে দেখা করার চেষ্টা করব। কেন পারব না? এটা তো গণতান্ত্রিক দেশ। প্রয়োজনে সাংবাদিক বৈঠক করব। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়েরও সেখানে যাওয়ার কথা রয়েছে।”

Featured article

%d bloggers like this: