28 C
Kolkata

Ukraine-Russia: নামতে পারল না বিমান, ইউক্রেনে ২০ হাজার ভারতীয়র নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ নয়াদিল্লির

নিজস্ব সংবাদদাতা : বৃহস্পতিবার রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেনে সেনা অভিযানের ঘোষণা করার পরে কার্যত যুদ্ধ পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে সেখানে থেকে যাওয়া ২০ হাজার ভারতীয় সেনার নিরাপত্তা নিয়ে রাষ্ট্রপুঞ্জ নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধি টি এস তিরুমূর্তি। তিরুমূর্তি বলেন, ‘‘দু’দিন আগে নিরাপত্তা পরিষদ বৈঠক করেছিল এবং পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেছিল।

আমরা দ্রুত উত্তেজনা কমানোর আহ্বান জানিয়েছিলাম এবং পরিস্থিতি সম্পর্কিত সমস্ত সমস্যা মোকাবিলায় কার্যকরী এবং যুক্তিগ্রাহ্য কূটনীতির উপর জোর দিয়েছিলাম। কিন্তু দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছি, উত্তেজনা প্রশমিত করার জন্য আন্তর্জাতিক মহলের সাম্প্রতিক উদ্যোগে সাড়া মেলেনি। সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলি সেই আহ্বানে কর্ণপাত করা হয়নি। পরিস্থিতি একটি বড় সঙ্কটে পরিণত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।’’

আরও পড়ুন:  Student Suicide: পরপর দুই পড়ুয়ার মৃত্যুর ঘটনায় উত্তাল পঞ্জাবের বিশ্ববিদ্যালয়

সোমবার রাতে পুতিন ইউক্রেনের ডোনেৎস্ক ও লুহানস্ক অঞ্চলকে (যাদের একত্রে ডনবাস বলা হয়) স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার ঘোষণার পরেই নিরাপত্তা পরিষদ জরুরি বৈঠক শুরু করেছিল। সেখানে অস্থায়ী সদস্য ভারতের প্রতিনিধি তিরুমূর্তি আলোচনার মাধ্যমে সঙ্কট নিরসনের আবেদন জানিয়েছিলেন। তিনি বলেন, ‘‘রাশিয়া, ইউক্রেন ও ইউরোপের ওএসসিই (অর্গানাইজেশন ফর সিকিউরিটি অ্যান্ড কো-অপারেশন ইন ইউরোপ)-ভুক্ত দেশগুলিকে নিয়ে গঠিত গোষ্ঠীর আলোচনাকে স্বাগত জানাচ্ছে ভারত।’’

আরও পড়ুন:  Chandigarh Airport: বদলে যাচ্ছে চণ্ডীগড় বিমানবন্দরের নাম, মন কি বাতে ঘোষণা মোদীর

অবিলম্বে ইউক্রেন সীমান্তে ‘সেনা সংখ্যা কমানো’ ((ডিএসক্যালেশন)-র আবেদন জানিয়েছেন তিনি।সেই সঙ্গে তিনি জানান, রাশিয়া, ইউক্রেন, জার্মানি ও ফ্রান্সের মধ্যে নরম্যান্ডি পর্যায়ের আলোচনারও পক্ষে ভারত। তিরুমূর্তির বলেন, ‘‘গঠনমূলক কূটনীতিই এখন একমাত্র পথ।’’ গঠিত গোষ্ঠীর আলোচনাকে স্বাগত জানাচ্ছে ভারত।’’ সেই সঙ্গে তিনি জানান, রাশিয়া, ইউক্রেন, জার্মানি ও ফ্রান্সের মধ্যে নরম্যান্ডি পর্যায়ের আলোচনারও পক্ষে ভারত।

আরও পড়ুন:  'BJP কংগ্রেসের কাছ থেকে আবর্জনা সংগ্রহ করেছে', অমরিন্দরের দলত্যাগ নিয়ে কটাক্ষ আপের

এদিকে কিয়েভ-সহ ইউক্রেনের বিভিন্ন অঞ্চলে রুশ হামলা শুরু হয়ে যাওয়ার পরই আকাশপথ বন্ধ করে দিয়েছে ইউক্রেন। যার ধাক্কায় এয়ার ইন্ডিয়ার একটি বিমান সেদেশে নামার অনুমতি না পেয়ে ফিরে এল নয়াদিল্লিতে। খারকিভ, মারিওপোল, বেলগার্দ ওবাস্কে রাশিয়া হামলা চালিয়েছে বলে খবর। ফলে স্বাভাবিক ভাবেই গোটা বিশ্বের মতো উদ্বেগ বাড়ছে ভারতেরও। অনেকেই এই হামলায় তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের সিঁদুরে মেঘ দেখতে পাচ্ছেন।

আরও পড়ুন:  'BJP কংগ্রেসের কাছ থেকে আবর্জনা সংগ্রহ করেছে', অমরিন্দরের দলত্যাগ নিয়ে কটাক্ষ আপের

Featured article

%d bloggers like this: