28 C
Kolkata

Delhi Zomato Delivery Guy Killed : মদ্যপ পুলিশকর্মী পিষে দিল জোম্যাটোর ডেলিভারি বয়কে

নিজস্ব সংবাদদাতা : সলিল ত্রিপাঠি দীর্ঘদিন ধরে অনলাইন খাবার সরবরাহকারী সংস্থা জোম্যাটোয় কাজ করতেন। গত শনিবার রাতে বাইকে চড়ে খাবার পৌঁছে দিতে দিল্লির বুদ্ধবিহারের দিকে যাচ্ছিলেন। সেই সময় ঘটে বিপত্তি। এক পুলিশ কনস্টেবল প্রথমে একটি বাস এবং পরে জোম্যাটো কর্মীর বাইকে ধাক্কা মারেন। দিল্লির পুলিশকর্মী মহেন্দ্রর গাড়ির ধাক্কায় ছিটকে পড়েন জোম্যাটো কর্মী। গুরুতর চোট লাগে। মৃত্যু হয় তাঁর।

প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, দুর্ঘটনার সময় পুলিশকর্মী মদ্যপ ছিলেন। সে কারণে বেসামাল হয়ে যায়। তাই এত বড় কাণ্ড ঘটে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মারুতি গাড়িটি চালাচ্ছিলেন রোহিনী নর্থের পুলিশ কনস্টেবল মহেন্দ্র। প্রথমে একটি বাসে ও পরে ওই বাইক আরোহীকে তিনি ধাক্কা দেন। দুর্ঘটনায় সলিলের প্রাণহানি মানতে পারছেন না কেউই। গত বছরই মৃত্যু হয় সলিলের বাবার। করোনা প্রাণ কাড়ে তাঁর। পরিবারের একমাত্র রোজগেরে সদস্য ছিলেন সলিল। তাঁর প্রাণহানিতে মাথায় আকাশ ভেঙে পড়েছে পরিজনদের।

আরও পড়ুন:  Goa Tmc: সবচেয়ে বেশি খরচ করেও গোয়ায় জয় অধরা তৃণমূলের
আরও পড়ুন:  Goa Tmc: সবচেয়ে বেশি খরচ করেও গোয়ায় জয় অধরা তৃণমূলের

কীভাবে সংসার চলবে, তা ভেঙে দিশাহারা প্রায় সকলেই। তবে এই বিপদের দিনে নিহত কর্মীর পরিজনদের পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছে জোম্যাটো। নিহত ব্যক্তির পরিবারকে সাহায্যের আশ্বাস সংস্থার মুখপাত্রের। পুলিশ মহেন্দ্রর বিরুদ্ধে এফআইআর করে। তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এদিকে এই ঘটনায় ওই পুলিশ কর্মীর দায়িত্বজ্ঞান নিয়েও প্রশ্ন উঠছে। দুর্ঘটনা প্রসঙ্গে দিল্লি পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, “পুলিশকর্মীর গাড়ির ধাক্কায় জোম্যাটো কর্মীর প্রাণহানি হয়েছে। রোহিনী উত্তর থানার ওই পুলিশকর্মী মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালাচ্ছিল। অভিযুক্ত পুলিশকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।”

Featured article

%d bloggers like this: