27 C
Kolkata

Taliban Bans Afghan Women Sports :’স্পোর্টসে মহিলাদের শরীর দেখা যায়, তাই তারা খেলতে পারবে না ‘

নিজস্ব সংবাদদাতা : আফগানিস্তানে নতুন সরকারের ঘোষণা করেছে তালিবান। মোল্লা হাসান আখন্দের নেতৃত্বে সেই সরকার গঠন হতে চলেছে। যদিও, এই সরকারকে অস্থায়ী বলে ঘোষণা করেছেন তালিবান নেতারা। এর মধ্যেই দেশের নাগরিকদের জন্য জারি হচ্ছে একের পর এক ফতোয়া। এবার আফগানিস্তানের কোনও মহিলার খোলাধুলোয় অংশ নেওয়ার ক্ষেত্রে জারি হল নিষেধাজ্ঞা।

কারণ হিসেবে তালিবানদের দাবি, স্পোর্টসে মহিলাদের শরীর দেখা যায়। তাই তা থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে। টোলো নিউজ রিপোর্ট অনুযায়ী, “তালিবানরা অ্যাথলেটিকের (মহিলাদের জন্য) অনুমতি দেয় না। যদিও মহিলাদের এই বিভাগটি অতীতে আলাদা ছিল এবং এখনও আলাদা করা হয়েছে। কোচও একজন মহিলা, পুরুষ নয়। তবুও (মহিলাদের জন্য) তাদের ব্যায়াম করতে দেওয়া হবে না !”

বলেছেন একটি স্পোর্টস ক্লাবের প্রধান হাফিজুল্লাহ আবাসি। তায়কোন্ডো এবং পর্বতারোহণের প্রশিক্ষক তাহিরা সুলতানি বলেন, “তালিবানরা ক্ষমতায় আসার পর থেকে,ব্যায়াম করার অনুমতি দেওয়া হয়নি। প্রশিক্ষণের জন্য অনেক স্পোর্টস ক্লাবকে রেফার করেছি। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত, তারা বলেছে যে মহিলাদের বিভাগটি বন্ধ রয়েছে”। যদিও গত আট বছরে তিনি জাতীয় পর্যায়ের পাশাপাশি বিদেশেও পুরস্কার অর্জন করেছেন।

আরও পড়ুন:  Mark Zuckerberg META: ২০০৪-এর পর প্রথম রেকর্ড কর্মী ছাটাইয়ের সিদ্ধান্ত জুকেরবার্গের
আরও পড়ুন:  সীমান্ত কি বন্ধ করা হবে?

আফগানিস্তানের দখল নেওয়ার পর থেকেই মহিলাদের উপর নানা রকম ফতোয়া জারি করেছে তালিবানিরা। চলন্ত গাড়িতে বাজানো যাবে না গান! হিজাব ছাড়া গাড়িতে উঠতে পারবেন না কোনও মহিলা! কখনও চাকরি করতে না দেওয়া তো কখনও পুরুষ সঙ্গী ছাড়া বাইরে না বেরনো। আস্তে আস্তে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে সবই। এবার খেলাধূলোতেও কোপ পড়ল। প্রথম পর্যায়ের তালিবানি শাসনে অর্থাৎ ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত মহিলাদের উপর তালিবানি দমননীতি এমন পর্যায়ে গিয়েছিল যে তাঁরা পুরুষ অভিভাবক ছাড়া ঘরের বাইরে পা রাখতে পারতেন না।

বাইরে বেরলেই বোরখা পরে বেরতে হত। শুধু তাই নয় ধর্মীয় প্রার্থনার বিষয়েও জোরদার কড়াকড়ি শুরু হয়েছিল। পুরুষদের বাধ্য করা হত দাড়ি রাখতে। রাস্তায় রাস্তায় চলত কড়া প্রহরা।সামান্য বেচাল দেখলেই কড়া শাস্তির বিধান ছিল। শুধু তাই নয় জন সমক্ষে চাবুক মারা হত আইন উল্লঙ্ঘনকারীকে। সেই অন্ধকার জগ আবার ফিরে আসছে বলে মনে করছেন আফঘান নাগরিকরা।

আরও পড়ুন:  Walt Disney Frozen: মাথা কেটে সংরক্ষণ! জীবিত ওয়াল্ট ডিজনির!

Featured article

%d bloggers like this: