18 C
Kolkata

জল নিয়ে জলঘোলা

ঢাকাঃ ভারত ভ্রমনে এসেছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মুল আলোচনার বিষয় তিস্তা জল বণ্টন। তাছাড়াও আছে সংখ্যালঘুদের ওপর অত্যাচার নিয়ে আলোচনা। যতই হোক দুই প্রতিবেশী দেশের সম্পর্ক অনেক দিনের। বাংলাদেশের মুক্তি যুদ্ধতেও ভারতবর্ষের বড় ভূমিকা ছিল।

তবে সে দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফর নিয়ে বিরোধীদল বিএনপির বিরূপ মন্তব্যে উরে এল। প্রধানমন্ত্রী হাসিনার ভারত সফরে বাংলাদেশ কিছুই পায়নি’ বলে অভিযোগ করেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগির। এই মন্তব্য যে ক্ষমতাসীন  আওয়ামি লিগ ভালো ভাবে নেয়নি তা বঝা জায় তাদের প্রতিবাদে।  দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের,  নয়াদিল্লির প্রতি আস্থা প্রকাশ করে তিনি স্পষ্ট জানান, যে ভারত  সমস্ত পরিস্থিতিতে বাংলাদেশের পাশে দাঁড়িয়েছে।

আরও পড়ুন:  Volcano: ৪০ বছর পর জেগে উঠেছে বৃহত্তম আগ্নেয়গিরি, টগবগিয়ে ফুটছে লাভা, বাড়ছে আতঙ্ক

উল্লেখ্য, গত সোমবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণে ভারতে আসেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিস্তা সমস্যার সমাধান না হলেও, অসমের কুশিয়ারা নদীর জলবণ্টন নিয়ে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয় দুই দেশের মধ্যে। কিন্তু এনিয়ে জলঘোলা করা শুরু করেছে বাংলাদেশের প্রধান বিরোধী দল বিএনপি। শেখ হাসিনা দেনা-দরবার করে সার্বভৌমত্ব বিক্রি করতে ভারতে গিয়েছেন কি না, এমন প্রশ্ন তুলেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

মঙ্গলবার দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রী মোদির সঙ্গে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বৈঠকে অসমের কুশিয়ারা নদীর জলবণ্টন নিয়ে পাকাপাকি চুক্তি হয়েছে। ১৫৩ কিউসেক জল নেবে বাংলাদেশ। এছাড়া তথ্যপ্রযুক্তি, মহাকাশ ক্ষেত্রে দুই দেশ একে অপরের হাত ধরে চলবে। এদিন হায়দরাবাদ হাউসে দুই রাষ্ট্রপ্রধানের বৈঠকের পর মোট ৭ টি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। রয়েছে রেল, সড়ক, বিদ্যুৎ-সহ আরও বেশ কয়েকটি চুক্তিও। বাংলাদেশকে আর্থিকভাবে এগিয়ে যেতে সাহায্য়ের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে ভারত।

আরও পড়ুন:  Anti-Hijab Protest: হিজাব আইনে বদল আনতে পারে সরকার

Featured article

%d bloggers like this: