25 C
Kolkata

Israel Florona : করোনার পর নতুন আতঙ্ক ‘ফ্লোরোনা’

নিজস্ব সংবাদদাতা : একে করোনা আতঙ্ক। তার সঙ্গে ইনফ্লুয়েঞ্জা। দুইয়ে মিলে এবার নতুন আতঙ্কের সৃষ্টি করল নাম ‘ফ্লোরোনা’। শুক্রবার আরব নিউজ জানায়, ইজরায়েলে হদিশ মিলেছে প্রথম “ফ্লোরোনা” আক্রান্তের। এই রোগেই প্রথম আক্রান্ত হলেন ইজরায়েলের এক অন্তঃসত্ত্বা মহিলা।এই অসুখ আদতে কোভিড -19 এবং ইনফ্লুয়েঞ্জার একসঙ্গে আক্রমণ। ইজরায়েলের একটি সংবাদপত্র জানিয়েছে , এই সপ্তাহে সন্তান জন্ম দেওয়ার জন্য রবিন মেডিকেল সেন্টারে এক মহিলা ভর্তি হন।

তাঁর শরীরে ফ্লোরোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে। ইনফ্লুয়েঞ্জা ও তার সঙ্গে করোনাভাইরাস।যদিও করোনার একটি টিকাও নেননি সেই মহিলা। তবে জানা গিয়েছে, এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার পর আপাতত তাঁর শারীরিক অবস্থা ভালই আছে। তাঁকে হাসপাতাল থেকেও ছেড়ে দেওয়ার কথা জানানো হয়েছে। স্বাভাবিক ভাবেই নতুন ধরনের এই রোগ নিয়ে চিন্তায় পড়েছেন ইজরায়েল বাসী।

কিন্তু ঠিক কতখানি ভয়ংকর এই রোগ? এতে শরীরে কী কী উপসর্গ দেখা যায়? চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন, ইনফ্লুয়েঞ্জার পাশাপাশি শরীরে কোভিড-১৯ থাবা বসালে তা অনেক ক্ষেত্রে মারাত্মক আকার ধারণ করতে পারে। এর ফলে নিউমোনিয়া, মায়োকার্ডাইটিসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বাড়ে। এমনকী মৃত্যুও হতে পারে। এখানেই শেষ নয়, বিশেষজ্ঞদের দাবি, এই রোগের হানায় শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও কমে যায়।

বিশ্বজুড়ে চোখ রাঙাচ্ছে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন। এই পরিস্থিতিতে বহু দেশই বুস্টার ডোজ শুরু করেছে। সেখানে ইজরায়েলই বিশ্বে প্রথম কোভিড ভ্যাকসিনের চতুর্থ ডোজ দেওয়া শুরু করল। প্রথমে ভ্যাকসিন পাবেন সংক্রমণের ঝুঁকি যাঁদের সবথেকে বেশি তাঁরা ।

ওমিক্রন তরঙ্গের আশঙ্কাতেই এই পদক্ষেপ। চিকিৎসকদের পরামর্শ, যত দ্রুত সম্ভব করোনার টিকা নিতে হবে। তাছাড়া কোভিড সংক্রমণ রুখতে আগে থেকেই সতর্ক থাকা প্রয়োজন। কারণ খুব তাড়াতাড়ি নিজের বংশ বিস্তার করছে ফ্লোরোনা।

Featured article

%d bloggers like this: