20 C
Kolkata

ঝড় হবে আরও ভয়ঙ্কর, আরও বিধ্বংসী, আরও মারাত্মক

নিজস্ব সংবাদদাতা : আমেরিকার সাম্প্রতিক বিধ্বংসী টর্নেডোর পর আশঙ্কার কথা শোনালেন আমেরিকার এক উচ্চপদস্থ কর্তা। আমেরিকার এমার্জেন্সি ম্যানেজমেন্টের দায়িত্বে থাকা ওই আধিকারিক ডিন ক্রিসওয়েল জানিয়েছেন জলবায়ু যেভাবে বদলাচ্ছে তাতে এই ধরনের ঝড় আগামিদিনে অস্বাভাবিক নয়। তবে সেই ঝড় হবে আরও ভয়ঙ্কর, আরও বিধ্বংসী, আরও মারাত্মক। এক সংবাদমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘এটাই হবে আমাদের নিউ নর্মাল।’ তিনি মনে করিয়ে দেন জলবায়ু পরিবর্তনের জন্য আগামীতে কতটা সমস্যা করতে পারে।

তিনি বলেন ‘আমরা আরও ভয়ঙ্কর ঝড়ের সাক্ষী হব, সে হারিকেনই হোক বা টর্নেডো, হতে পারে ভয়ঙ্কর দাবানলও। কী ভাবে এই পরিস্থিতি থেকে মুক্তি মিলতে পারে, সেই পথ ভাবতে হবে আমাদের।’ উল্লেখ্য টর্নোডো সাম্প্রতিককালে বাংলাতেও দেখা গিয়েছে। ইয়াস ঘূর্ণিঝড় আসার আগে রাজ্যের একাধিক জায়গায় টর্নোডো চোখে পড়েছে। যদিও ঝড়ের মাত্রা কম থাকায় ক্ষয়ক্ষতি তেমন হয়নি।

আরও পড়ুন:  অন্ধ্রপ্রদেশের নতুন রাজধানীর নাম ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

গত শুক্রবার মধ্যরাতেই টর্নেডো আছড়ে পড়ে আমেরিকার কেন্টাকিতে। টর্নেডো নিয়ে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন টেলিভিশন বার্তায় বলেন, “অত্যন্ত দুঃখজনক ঘটনা। আমরা এখনও জানিনা যে কতজনের মৃত্যু হয়েছে এবং ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণই বা কতটা।” বিশ্ব জুড়ে আবহাওয়াবিদরা বারবার সতর্ক করেছেন। জলবায়ু পরিবর্তন হতে থাকলে বিশ্বজুড়ে আবহাওয়া ক্রমশ চরমভাবাপন্ন হয়ে উঠবে বলে সতর্ক করেন তাঁরা। তবে সে চেহারা যে কতটা ভয়ঙ্কর হতে পারে, তারই উদাহরণ মিলেছে আমেরিকার কেন্টাকিতে।

কয়েক মিনিটের মধ্যে টর্নেডোতে লণ্ডভণ্ড হয়ে গিয়েছে বিস্তীর্ণ এলাকা। এখনও পর্যন্ত শতাধিক মৃত্যুর খবর মিলেছে। ভেঙে পড়েছে ঘরবাড়ি। ধ্বংসস্তূপ সরিয়ে চলছে উদ্ধারের কাজ। এরই মধ্যে আবহাওয়া নিয়ে এই বার্তা দিলেন আমেরিকার ফেডারেল এমার্জেন্সি ম্যানেজমেন্ট এজেন্সির প্রধান ডিন ক্রিসওয়েল।

আরও পড়ুন:  অন্ধ্রপ্রদেশের নতুন রাজধানীর নাম ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

Featured article

%d bloggers like this: