26 C
Kolkata

Pakisthan Food Crisis : চরম অর্থসংকটের বেনজির দৃশ্য পাকিস্তানে

ইসলামাবাদ : বেনজীর দৃশ্য পাকিস্তানে। দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে একটি ট্রাক, সেই ট্রাককে লক্ষ্য করে ছুটছে কমপক্ষে এক ডজন বাইক । এটাই পাকিস্তানের বাস্তব । সেখানে মানুষ যখনই কোনও ট্রাক দেখতে পাচ্ছে তখনই পিছু নিচ্ছে । তাদের আশা যদি ওই ট্রাক থেকে সামান্য কিছু খাবার পাওয়া যায় ।চরম খাদ্য সংকট এবং আর্থিক সংকটে ভুগছে পাকিস্তান । তারই জ্বলন্ত উদাহরণ দেখা যাচ্ছে পাকিস্তানের বিভিন্ন প্রান্তে । সামান্য আটা-ময়দার জন্যও সাধারণ মানুষ নিজেদের মধ্যে মারপিট করছেন। ধস্তাধস্তি, পদপিষ্ঠ হয়ে মৃত্যুও ঘটছে।

এদিকে পাকিস্তান সরকারের তরফে জানানো হয়েছে এই সংকট মেটানোর জন্য যথাসম্ভব চেষ্টা করছেন তারা । বিভিন্ন দেশের কাছ থেকে ঋণ চাওয়া হচ্ছে। শনিবারই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ বলেন,’পরমাণু শক্তিধর দেশ হয়েও নাগরিকদের জন্য যেভাবে ভিক্ষা চাইতে হচ্ছে । তা অত্যন্ত লজ্জাজনক।’

আরও পড়ুন:  অন্ধ্রপ্রদেশের নতুন রাজধানীর নাম ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

পাকিস্তানের বর্তমান অবস্থার বিষয়ে সতর্ক করা হয়েছিল অনেক আগেই । দেশ চালাতে সঠিক আর্থিক পরিকল্পনা গ্রহণ না করা এবং চিন সহ একাধিক দেশের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণে অর্থ ঋণ নেওয়াতেই আজ পাকিস্তানের এই করুণ দশা। শ্রীলংকার মতোই পাকিস্তানের আর্থিক ভাঁড়ার প্রায় শূন্য যা টাকা রয়েছেে, তাতে অতি সামান্য পরিমাণ খাদ্যশস্যই কেনা সম্ভব বলে জানা গিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে ভাঁড়ারে যে খাদ্যসশ্য রয়েছে, তা নিয়েই চলছে কাড়াকাড়ি।

বস্তুত সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে পাকিস্তানের একটি ট্রাকে করে ময়দা নিয়ে যাওয়া হচ্ছে, যার পেছনে ছুটছে কমপক্ষে বারোটি বাইক। ট্রাকটি দাঁড়াতেই বাইক থেকে হুড়মুড় করে নেমে এলেন চালকরা, হাতের মুঠোয় ধরা টাকার নোট সকলের উদ্দেশ্যে একটাই বস্তা দেওয়া হয় । তাও প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই অন্যরা কেড়ে নিচ্ছে। এই দৃশ্য সামনে আসতেই সাধারণ মানুষের উদ্দেশ্যে একটি বার্তা দেওয়া হয়েছে যেখানে লেখা আছে আপনার নিজেদের ভাগ্যবান মনে করুন যে আপনারা পাকিস্তানি নন।

আরও পড়ুন:  Padma Shri awardee from Mizoram: এবার মিজোরাম থেকে পদ্মশ্রী পুরস্কারপ্রাপ্ত

পাকিস্তানের স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলির তরফে জানানো হয়েছে, গত সপ্তাহ থেকে খাইবার পাখতুনখাওয়া, সিন্ধ ও বালোচিস্তান প্রদেশে ময়দার দাম আকাশছোঁয়া । এক প্যাকেট ময়দা বিক্রি হচ্ছে পাকিস্তানি মুদ্রায় তিন হাজার টাকায় ।

Featured article

%d bloggers like this: