28 C
Kolkata

Bangladesh: জ্বালানির লাগামছাড়া মূল্যবৃদ্ধি, প্রতিবাদে জনবিক্ষোভ বাংলাদেশে

নিজস্ব প্রতিবেদন: জ্বালানির লাগামছাড়া মূল্যবৃদ্ধি। শুক্রবার বাংলাদেশের হাসিনা সরকার পেট্রোল-ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধি ঘোষণা করেন। যার ফলে দেখা যাচ্ছে, ডিজেলের দাম গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৩৪ টাকা প্রতি লিটার এবং পেট্রোল ৪৪ টাকা প্রতি লিটার। জ্বালানির এতটা মূল্য বৃদ্ধির ফলে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসেরও দাম বাড়ার সম্ভাবনা। একই সাথে বাড়বে বাস ভাড়াও। সেকারণেই জ্বালানির এই লাগামছাড়া দামবৃদ্ধির প্রতিবাদে বাংলাদেশ জুড়ে শুরু জনবিক্ষোভ। বিভিন্ন পেট্রোল পাম্প ঘিরে ব্যাপক অশান্তি দেখা গিয়েছে। প্রতিবাদীদের একটাই দাবি, অবিলম্বে পেট্রল, ডিজেলের বর্ধিত দাম প্রত্যাহার করতে হবে।

শুক্রবার রাত ১২টার পর থেকে বাংলাদেশে জ্বালানির নতুন দাম কার্যকর হয়েছে। ডিজেল এবং কেরোসিনের দাম একধাক্কায় লিটার প্রতি ৩৪ টাকা করে বৃদ্ধি পেয়েছে। মূল্যবৃদ্ধির পর সেঞ্চুরি পার করেছে দুই জ্বালানির দামই। ডিজেল ও কেরোসিনের লিটার প্রতি দাম ৮০ টাকা থেকে বেড়ে ১১৪ টাকা দাঁড়িয়েছে। বেড়েছে পেট্রলের দামও। ৮৬ টাকা থেকে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩০ টাকা। সেঞ্চুরি পার করে অকটেনের দাম দাঁড়িয়েছে ১৩৫ টাকা।

আরও পড়ুন:  বিদেশের মাটিতে ফিল্মি কায়দায় নিকেশ বিদেশি চর
আরও পড়ুন:  বিদেশের মাটিতে ফিল্মি কায়দায় নিকেশ বিদেশি চর

আমজনতার অভিযোগ, গত নভেম্বরে ডিজেলের দাম বাড়ানোর পর বাস ভাড়া বাড়ানো হয় প্রায় ২৭ শতাংশ, লঞ্চ ভাড়া বাড়ানো হয় ৩৫ শতাংশ যা তেলের দাম বাড়ানো হারের চেয়ে অনেক বেশি। এটাই রেকর্ড দামবৃদ্ধি। এর প্রতিবাদে রবিবার রাতভর বিক্ষোভের সাক্ষী রইল রাজধানী ঢাকার ন্যাশনাল মিউজিয়াম চত্বর। দামবৃদ্ধি নিয়ে সরকারি সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে মিছিল বেরয় ঢাকার রাস্তায়। তাদের মধ্যে বেশিরভাগই ছাত্র ও যুব। প্রতিবাদে সামিল পরিবহণ সংগঠনগুলিও। বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির দাবি, বাসভাড়াও বাড়াতে হবে। কিন্তু সেই ভাড়া কী হারে বাড়বে, তা নিয়ে চিন্তায় তাঁরা।

Featured article

%d bloggers like this: