28 C
Kolkata

Biswakarma Puja: যন্ত্রের দেব নন, কে এই বিশ্বকর্মা?

নিজস্ব প্রতিবেদন: আজ ঘটা করে বা সাধ্যমতো সব জায়গাতেই পূজিত হচ্ছেন বিশ্বকর্মা। ফল, ফুল দিয়ে চলছে বাবার আরাধনা। সাইকেল থেকে চারচাকা, কোনও কিছুতেই পুজো করা বাদ পড়ছে না। কারখানা, গ্যারেজ, সোনার দোকান এমনকী অনেক কসমেটিক্সের দোকানেও পুজো হন তিনি। আকাশে ঘুড়ির সংখ্যা সমলেও উড়ছে না যে তা নয়। কিন্তু কেন পুজো করা হয় বিশ্বকর্মাকে? কীসের দেবতা তিনি?

ঋক বেদের দশম মণ্ডলের দু’টি সুক্তে ( ৮১, ৮২) বিশ্বকর্মার স্তুতি পাওয়া যায়। মহাভারত অনুযায়ী, তিনি হলেন দেবতাদের শিল্পী। সহজ ভাষায় শিল্পের দেব। মনে করা হয়, তিনি দেবতাদের প্রাসাদ এবং সমস্ত অলংকারের নির্মাতা। মহাভারত অনুযায়ী বাবা বিশ্বকর্মার বিবরণ হল- চারটি বাহু। একটিতে বই, আর একটিতে দড়ির ফাঁস, অন্যটিতে যন্ত্র ও চতুর্থটিতে কলস।

তাঁর কিছু অমর সৃষ্টিও রয়েছে। মনে করা হয়, বিশ্বকর্মারই সৃষ্টি হল স্বর্গলোক। সোনার লঙ্কাও নাকি তাঁরই তৈরি। দ্বারকা সৃষ্টি করেন দ্বাপর যুগে। হস্তিনাপুর ও ইন্দ্রপ্রস্থের সৃষ্টিকর্তাও তিনিই। দেবতার অস্ত্র থেকে রথ সবই বিশ্বকর্মার ট্যালেন্টের অংশ।

আরও পড়ুন:  Aparajita Flower: মাত্র দুটি উপায়ে মিলবে আপনার বাস্তু সংক্রান্ত সমস্ত সমস্যার সমাধান....
আরও পড়ুন:  মানুষেরই নতুন প্রজাতির খোঁজ মিলল ফিলিপিন্সের গুহায়

Featured article

%d bloggers like this: