18 C
Kolkata

ChirstMas:বড়দিনে সাজিয়ে তুলুন আপনার সাধের আলয়টি

নিজস্ব সংবাদদাতা : শীত এসে গেছে , তার পিছু পিছুই দরজায় কড়া নাড়ছে বড়দিন এরপরই নতুনবছর। চারিদিকে উৎসব ও সেলিব্রেশনের মেজাজ। এই উৎসবের দিনগুলি সুন্দর করে সাজসজ্জা না করলে হয় নাকি। শুধু নিজেকে কেন ? সাজাতে হবে আপনার প্রিয় বাড়িটিকেও। ভাবছেন কি করে সাজাবেন যাতে আপনার বাড়ির এই দিন আপনার বাড়িটি,কিছু অসাধারণ আইডিয়া রইল আপনাদের জন্য।

১.বড়দিনে বাড়ির শোভা বাড়াতে গুরুত্বপূর্ণ হল ঘর সাজানোর অলঙ্কারগুলি বাজারে নানা ধরণের ডিজাইনের ছোটো বড়ো মাঝারি আকারের ক্রিসমাস অলঙ্কার পাওয়া যায় যেগুলি ক্রিসমাস ট্রির ওপর ঝুলিয়ে রাখতে পারেন এগুলি ক্রিসমাস ট্রি শোভা বাড়িয়ে তুলবে।বৃত্তকার বল আকারে তারা আকারের অলংকারগুলি ঘরের দেওয়ালেরও সৌন্দর্য বাড়িয়ে তোলে।

২.শুভেচ্ছা জানাতে আমরা সব সময় ব্যবহার করি কার্ড।তেমনি ক্রিসমাস কার্ড ব্যবহার করতে পারি প্রিয়জনদের শুভেচ্ছা জানানোর জন্য। এই কার্ড গুলোই আবার ঘর সাজানোর কাজে ব্যবহার করতে পারি । শুভেচ্ছা লেখা এই কার্ডগুলি বাড়ির দেওয়ালে টানিয়ে সাজালে তা নজর কাড়বে সবার।

৩.ক্রিসমাস ট্রি দিয়ে তো সাজাতেই হবে বাড়ি। ক্রিসমাস ট্রি ছাড়া যেন বড়দিনের বাড়ি সাজানো প্রায় অসম্পূর্ণ থেকে যায়। যা বেশিরভাগ লোকেদের কাছে বড়দিনের ফোকাস হয়ে ওঠে। বাড়ির সৌন্দর্য আকর্ষণীয় করে তুলতে বাড়ির উঠোনে লাইট দিয়ে ক্রিসমাস ট্রি সাজাতে পারেন।

৪.মোমবাতি প্রেম, প্রার্থনা, আবেগের প্রতীক।বড়দিনে খ্রিস্টানরা মোমবাতিকে প্রার্থনার জন্য ব্যবহার করেন। তাই বড়দিনের সাজসরঞ্জামের তালিকায় মোমবাতি থাকা আবশ্যক । বড়দিনে বাড়ি আলকিত করার জন্য রঙ বেরঙের মোমবাতি জ্বালাতে পারেন।

৫.ক্রিসমাস বেল সবসময় গির্জা এবং খ্রিস্টান ধর্ম সঙ্গে সংযুক্ত। এই ঘণ্টাটি আভাস দেয়, বড়দিন হাজির। ক্রিসমাস বেল দেখতে ছোট হলেও বেশ আকর্ষণীয়। এই সাজসরঞ্জামটি ক্রিসমাস ট্রি তে ঝুলিয়ে রাখতে পারেন বা বাড়ির দোর বেল হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন।

৬.ক্রিসমাসে বাচ্চাদের সবচেয়ে প্রিয় সান্টা ক্লজ। তাই বড়দিনের সাজসরঞ্জাম সান্টা ক্লজ ছাড়া ভাবাই যায় না। সান্টার ছোট বড় আকৃতির টয়েস দিয়ে ঘর সাজাতে পারেন বা পাইন গাছের উপর ঝুলিয়ে দিতে পারেন।

৭.লাল রঙের সান্টার টুপি ক্রিসমাস পার্টির লুকসটাই বদলে দেবে। বড়দিনে সান্টার লাল টুপি একটা ঐতিহ্য। এছাড়াও ক্রিসমাস ট্রি সাজানোর জন্য এই সরঞ্জামটি কাজে লাগাতে পারেন।

৮.ক্রিসমাস ট্রিতে সাজানোর জন্য ছোট বা মরিচ বাতির সেট পাওয়া যায়। এবছর নানা ধরনের মিউজিক্যাল বাতি বাজারে এসেছে। যেগুলোর খরচ অনেক কম।

৯.বড়দিনের মূল আকর্ষণ ক্রিসমাস স্টার লাইট। এইদিনে খ্রিস্টানদের প্রতিটি বাড়ির বারান্দায় এই বিশাল আকৃতির তারা লাইট ঝুলতে দেখা যায়। ক্রিসমাসে ঘর সাজানোর জন্য এটি শৌখিন সাজসরঞ্জাম।

১০.বড়দিনে ঘরের শোভা বাড়াতে পারে বিভিন্ন হ্যান্ডক্রাফ্ট-এর জিনিসও ব্যবহার। এগুলি যদি দরজার সামনে কিংবা ঘরের দেওয়ালে টানিয়ে সাজানো হয় তবে দারুন হবে ডেকোরেশনটা।

Featured article

%d bloggers like this: