25 C
Kolkata

টুইটার-মেটা-অ্যামাজনের পথেই হাঁটছে গুগল, কাজ হারাতে পারেন ১০ হাজার কর্মী

নিজস্ব প্রতিবেদন: বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় কোম্পানিগুলোতে ছাঁটাই প্রক্রিয়া অব্যাহত রয়েছে। টুইটার, মেটা, মাইক্রোসফট, অ্যামাজন-এর পর এবার কর্মী ছাঁটাই করতে ভলেছে এই সংস্থা। এবার গুগলের ‘প্যারেন্ট কোম্পানি’ অ্যালফাবেট ১০ হাজার কর্মীকে ছাঁটাইয়ের সিদ্ধান্ত নিচ্ছে। পুওর পারফর্মিং অর্থাৎ যেসমস্ত কর্মচারীর কাজে কোম্পানি সন্তুষ্ট নয়, এমন কর্মীদেরকেই ছাঁটাই কওরা হবে বলে গুগলের তরফে জানানো হয়েছে। শুধু ছাঁটাই নয়, কর্মীদের বোনাস এবং স্টক দেওয়ার ক্ষেত্রেও এই পদ্ধতি কাজে লাগাতে লাগাতে চলেছে গুগুল।

‘দ্য ইনফরমেশন’ নামক একটি মার্কিন সংবাদমাধ্যমের রিপোর্টে বলা হয়েছে, এই পদ্ধতির অধীনে ম্যানেজারদের কোম্পানির ৬ শতাংশ অর্থাৎ প্রায় ১০ হাজার কর্মীকে শনাক্ত করতে বলা হয়েছে, যাঁদের কর্মদক্ষতার অভাবে সংস্থার ক্ষতি হয়েছে।’ রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে, এর আগে কর্মদক্ষতার নিরিখে প্রায় ২ শতাংশ কর্মীকে ছাঁটাই করার কথা জানিয়েছিল গুগুল। স্বাভাবিকভাবেই গুগলের কর্মী ছাঁটাইয়ের সিদ্ধান্তে চরম অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে বিশ্ব জুড়ে এই সংস্থার কর্মীদের মধ্যে।

আরও পড়ুন:  Kebab Recipe: ১৫ মিনিটে বানিয়ে ফেলুন সুস্বাদু পেয়ারি কাবাব

প্রসঙ্গত এলন মাস্কের হাত ধরে প্রথম ছাঁটাই শুরু হয় ট্যুইটারে। ঘোষণার কয়েক দিনের মধ্যেই বিশ্ব জুড়ে ট্যুইটার থেকে একের পর এক কর্মীকে ছাঁটাই করা হয়। সেইসঙ্গে, ফেসবুকের মালিক মেটাও সমগ্র বিশ্বের প্রায় ১৩ শতাংশ অর্থাৎ ১১ হাজার কর্মীকে ছাঁটাই করে। মার্কিন ই-কমার্স সংস্থা অ্যামাজনও ছাঁটাইয়ের সিদ্ধান্ত নেয়। ২০২৩ সাল পর্যন্ত অ্যামাজনে চাঁটাই চলবে বলে জানানো হয় কোম্পানির সিইওর তরফে।

Featured article

%d bloggers like this: