21 C
Kolkata

Mythology : ভারতের কোথায় পূজিত হন শকুনি মামা ?

নিজস্ব প্রতিবেদন : বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ মহাকাব্য মহাভারতের শকুনি ধূর্ততা এবং প্রতিশোধের প্রতীক। বলা হয়ে থাকে শকুনি না থাকলে হয়তো মহাভারতের মোট এই মহাযুদ্ধ হত না। তাঁর কপটতার সাক্ষী রয়েছে ইতিহাসের পাতায়। কিন্তু জানলে অবাক হবেন ভারতে এমন একটি জায়গা রয়েছে যেখানে শকুনিকে শুভশক্তির প্রতীক হিসাবে নায়কদের প্রাধান্য দেওয়া হয়। দক্ষিণ ভারতে এমনই একটি জায়গা যেখানে পূজিত হচ্ছে ‘গান্ধার রাজ শকুনি’। কোথায় রয়েছে এই মন্দির? কারায় বা করে তাঁর পূজা?

মামা শকুনির মন্দির কেরালার কোল্লাম জেলার মায়ামকোট্টুর পবিত্রেশ্বরমে অবস্থিত। মন্দিরের রক্ষণাবেক্ষণ রয়েছে কুরুবার সম্প্রদায়। জনশ্রুতি অনুযায়ী, তাঁরা নাকি কৌরবদের বংশধর। এই পবিত্রেশ্বরম হল সেই স্থানটি যেখানে কুরুক্ষেত্রের যুদ্ধ হওয়ার আগে কৌরবদের মধ্যে অস্ত্র ভাগ করে দেওয়া হয়েছিল। এখানে ভক্তরা নারকেল ও রেশমের টুকরো এবং তাড়ি দিয়ে নিয়মিত পূজা করে শকুনির।তবে এখানে শকুনির কোনো মূর্তি বা প্রতিকৃতিতে পূজা করা হয় না। তার বদলে একটি মুকুটে পূজা করা হয়। স্থানীয় বাসিন্দাদের বিশ্বাস ওই মুকুটটি গান্ধার রাজ শকুনির।মহাভারতের বর্ণিত কাহিনী অনুসারে, কুরুক্ষেত্রের যুদ্ধ শুরু হওয়ার আগে সমগ্র ভারতবর্ষ পরিক্রমন করেছিলেন মামা শকুনি তাঁর ভাগ্নে কৌরবদের নিয়ে। সে সময় তিনি কেরালার কোল্লাম জেলার এই স্থানে শিবের পূজা করে বর লাভ করেছিলেন তিনি । সেই প্রেক্ষিতে ওই স্থানে গড়ে উঠেছিল শকুনির মন্দির।

আরও পড়ুন:  Skin Care Tips : আটা দিয়ে ত্বকের যত্ন

Featured article

%d bloggers like this: