24 C
Kolkata

Red Light : যৌন পল্লীকে যে কারণে রেড লাইট এড়িয়া বলে

নিজস্ব প্রতিবেদন : রেড লাইট এরিয়ার নাম শুনলেই সকলের ধারণায় প্রথমে একটি কথাই আসে আর সেটি হলো যৌন ব্যবসা। পশ্চিমবঙ্গে এই ব্যবসা অবৈধ হলেও অন্যান্য দেশের সরকার মান্যতা দিয়েছে এই ব্যবসাকে। তবে এই যৌন ব্যবসার সাথে লাল রঙের বা পল্লীকে ‘রেড লাইট এরিয়া’ বলার পিছনে কয়েকটি বিশেষ কারণ রয়েছে। সেগুলি হল

কোন পুরুষ একটি নারীর সঙ্গে যৌন মিলনে লিপ্ত হলে তখন সেই মুহূর্তে আংশিক সময়ের জন্য হিংস্র হয়ে ওঠেন তারা। কার্যত তখন সেই মুহূর্তকে প্রকৃতির স্বচ্ছ আলো অথবা কোন নির্মল আলোতে প্রকাশ করেন। এক উগ্ৰ আলোতেই এই মিলন কার্য সম্পন্ন করে থাকেন। জানা যায়আমেরিকা এবং য়ুরোপের একাংশ লাল আলোকে যৌনতার সঙ্গে সম্পৃক্ত বলে মনে করতেন। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময়ে বেলজিয়াম এবং ফ্রান্সের বহু যৌনপল্লিতে নীল আলো ব্যবহার করা হত। যার অর্থ ছিল, সেই সব যৌনপল্লিতে একমাত্র উচ্চপদস্থ আধিকারিকদের প্রবেশের অনুমতি রয়েছে। আর লাল আলো যেখানে জ্বালানো হত, সেখানে প্রবেশাধিকার ছিল বাকিদের।

আরও পড়ুন:  ভারতেই আছে ভগবান শ্রী কৃষ্ণ! কিন্তু কোথায়? প্রতি রাতে তার প্রমান‌ও পাওয়া যায়…

এছাড়াও চীনের যৌনপল্লী গুলোতেও লাল বাতি জ্বালিয়ে রাখার রেওয়াজ ছিল। তবে শুধু চীন নয় ইউরোপেও কথিত আছে বিশ্বযুদ্ধের সময় কালে সেখানকার রেললাইনের পাশে গঠিত ছিল যৌনপল্লী। কার্যত সেখানে যখন রেলকর্মীরা নিজেদের মনোরঞ্জনের জন্য যেতেন সেই সময় কোঠির বাইরে তারা তাদের লাল লন্ঠনটি রেখে যেতেন। অপরদিকে জাপানের ক্ষেত্রেও একই ব্যাখ্যা পাওয়া যায় ইতিহাসে।

Featured article

%d bloggers like this: