33 C
Kolkata

Municipal Election : ভাটপাড়া ও বসিরহাটের অশান্তি !

নিজস্ব প্রতিবেদন : ভোটের উত্তপ্ত পরিবেশে এবার উঠে এলো  ইভিএম ভাঙার চিত্র। বসিরহাট ও ভাটপাড়ার ঘটনা।বুথে ঢুকে ইভিএম ‘ভাঙচুর’! বুথে ঢুকে আছড়ে মেরে ইভিএম ভেঙে ফেলার অভিযোগ উঠল।  অভিযুক্ত অন্য কেউ না ,খোদ বিজেপি প্রার্থী। বসিরহাটের ঘটনায় গ্রেফতার বিজেপি প্রার্থী।

ভাটপাড়ার ওয়ার্ড নম্বর ৯, ৪৩ নম্বর বুথ। অভিযোগ , ভোট চলাকালীন আচমকাই এক বিজেপি এজেন্ট ভিতরে ঢুকে গিয়ে আছাড় মেরে ভেঙে ফেলল ইভিএম।  বুথের ভিতর থাকা অফিসাররা  স্তম্ভিত হয়ে যান এমন ঘটনায়। ইভিএম ভাঙচুর এর পর থের অন্য দরজা দিয়েই পালিয়ে যান তিনি। ঘটনায় প্রিসাইডিং অফিসার বলেন, “ভোটের ১ ঘণ্টা হয়ে যাওয়ার পর । হঠাৎ করে বুথে একজন ঢোকেন। যাঁকে আমরা চিনি না। আমাদের থার্ড পোলিংয়ের কাছ থেকে কন্ট্রোল ইউনিট যেটা আছে, সেটা কেড়ে মাটিতে ফেলে ভেঙে দেন। তারপর দৌড়ে পালিয়ে চলে যান। তারপর থেকে ভোট বন্ধ রয়েছে। আমরা ভোট শুরু করার চেষ্টা করছি।”

আরও পড়ুন:  Maharashtra:বর্ষা ছেড়ে মাতশ্রীতের উদ্ধব ঠাকরের পরিবার
আরও পড়ুন:  Weather Update: বর্ষা কি দক্ষিণবঙ্গে ইনিংস খেলবে না?

এরপর এক ইরকম ঘটনা ঘটে বসিরহাটের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের ২৪১ নম্বর বুথে। এবারেও ওই ওয়ার্ডের বিজেপি প্রার্থী সুজয় চন্দ্রের বিরুদ্ধে।  অভিযোগ, ২৪১ নম্বর বুথে আচমকাই লোকজন নিয়ে ঢুকে পড়েন।  প্রিসাইডিং অফিসারের সামনেই বুথে ঢুকে ইভিএম তুলে আছাড় মারেন বিজেপি প্রার্থী। ভেঙে গুড়িয়ে যায় ইভিএম। এদিকে পাল্টা অভিযোগ করেন বিজেপি প্রার্থী।তার বক্তব্য ছাপ্পা ভোট চলছিল অবাধে , আর তাই জন্যই প্রতিবাদ করতে গিয়ে তিনি ইভিএম ভেঙে গুঁড়িয়ে দেন।

প্রত্যক্ষদর্শী এক ভোটার বলেন, “কোনও ঝামেলাই এখানে হচ্ছিল না। সবাই দাঁড়িয়ে শান্তিতেই ভোট দিচ্ছিলেন। হঠাৎ করে একজন এখানে ঢুকলেন, এখানে মেশিন ছিল, সেটা ভেঙে দিয়ে চলে গেলেন।”

Featured article