18 C
Kolkata

Gangasagar Mela 2022:করোনার জন্য গঙ্গাসাগরে আসতে পারছেন না ? চিন্তা নেই পবিত্র জল পৌঁছে যাবে জেলায়

নিজস্ব সংবাদদাতা : রাজ্যে আছড়ে পড়েছে করোনার তৃতীয় ঢেউ ৷ করোনা বিধি মেনে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে গঙ্গাসাগর মেলা ২০২২-এর শুভ সূচনা করলেন দক্ষিণ ২৪ পরগনার জেলাশাসক পি. উলগানাথান । উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সুন্দরবন উন্নয়ন মন্ত্রী বঙ্কিম হাজরা, সুন্দরবন বকখালি উন্নয়ন পর্ষদের চেয়ারম্যান সীমন্ত মালী, দক্ষিণ ২৪ পরগনার অতিরিক্ত জেলাশাসক মাননীয় শ্রী সিয়াত এন, ইন্ডিয়ান কোস্ট গার্ড কমান্ডার অভিজিৎ দাসগুপ্ত-সহ মেলা কমিটির সঙ্গে যুক্ত একাধিক আধিকারিক ।

১০ জানুয়ারি থেকে ১৬ জানুয়ারি পর্যন্ত চলবে এই মেলা । মেলা সূচনা করার পর জেলাশাসক পি. উলগানাথান বলেন, “এ বছর গঙ্গাসাগর মেলাতে বিশেষ চমক রয়েছে পুণ্যার্থীদের জন্য ৷ সাগর আরতি, মহাস্থান, ধ্যান কেন্দ্র করা হয়েছে । বহু বাধা-বিপত্তির পর কলকাতা হাইকোর্ট মেলা করার জন্য অনুমতি দিয়েছে । গঙ্গাসাগর মেলা কোনওদিন বন্ধ হবে না । যেভাবে করোনা মোকাবিলায় জেলা প্রশাসন পরিকল্পনা নিয়েছে, তা দেখে মনে হয় না কোনওরকম অসুবিধা হবে পুণ্যার্থীদের । গঙ্গাসাগর মেলাকে ইতিমধ্যেই ‘ডিজিটাল মেলা’ ঘোষণা করা হয়েছে ।

আরও পড়ুন:  Justice Ganguly : ২০১৬ সালের প্রাথমিক শিক্ষকের প্যানেল বাতিলের হুঁশিয়ারি বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের

আমরা এই গঙ্গাসাগর মেলাকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছি । ডিজিটাল মাধ্যমে এই মেলাকে আমরা বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে প্রায় দেড় কোটি মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা করছি ।” মেলা উপলক্ষে ইতিমধ্যেই গঙ্গাসাগরে ভিড় জমিয়েছেন কয়েক হাজার পুণ্যার্থী । রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে সকল পুণ্যার্থীদের করোনা পরীক্ষা করানো হচ্ছে । শিয়ালদা স্টেশন থেকে বাবুঘাট-সহ গঙ্গাসাগর আসার পথে একাধিক জায়গায় সরকারি উদ্যোগে চালু হয়েছে অস্থায়ী করোনা পরীক্ষা কেন্দ্র ৷ মেলা উপলক্ষে গঙ্গাসাগরে তৈরি করা হয়েছে সেফ হোম ।

কঠোর নিরাপত্তা বেষ্টনীতে মুড়ে ফেলা হয়েছে সাগর চত্বর । বাবুঘাট থেকে গঙ্গাসাগর পর্যন্ত প্রতিটি জায়গায় লাগানো হয়েছে সিসিটিভি । খোলা হয়েছে মেগা কন্ট্রোল রুম । কিন্তু করোনার জন্য বহু মানুষ আছেন যাঁরা গঙ্গাসাগরে আসতে পারছেন না। চিন্তা নেই ,এবার গঙ্গাসাগরের পবিত্র জল পাওয়া যাবে জেলায় বসেই। জেলা প্রশাসনের পরিকল্পনা হল জেলায় জেলায় জল পৌঁছে দেওয়া।

আরও পড়ুন:  Mamata Banerjee: যেমন কথা তেমন কাজ, মমতার কনভয় ছাড়ল অ্যাম্বুলেন্স

সেইমতো গঙ্গাসাগরের পবিত্র জল পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে ।মঙ্গলবার জেলায় জেলায় জল পাঠিয়ে দেওয়ার কাজ শুরু করল দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা প্রশাসন। এই বছর ‘ই-স্নান’-এ এখনও পর্যন্ত ৬০ হাজারেরও বেশি বুকিং হয়েছে । গঙ্গাসাগর মেলা এখন আন্তর্জাতিক মানের মেলাতে পরিণত হয়েছে বলে জানালেন পি. উলগানাথান ।

Featured article

%d bloggers like this: