24 C
Kolkata

নববর্ষের আমেজ কেমন করোনায়?

আজ পয়লা বৈশাখ অর্থাৎ বাংলা ক্যালেন্ডারের প্রথম দিন বাংলা বছরের শুরু। আমরা এই দিনটিকে থুরি বিশেষ দিনটিকে নববর্ষ বলেই জানি। আমাদের প্রত্যেকটি বাঙ্গালীদের এই দিন টা নিয়ে অনেক অনেক অনেক প্ল্যান থাকে। প্ল্যান থাকে খাওয়া-দাওয়ার বাঙালিয়ানায় সেজে ওঠার। এই দিনে কোন সাহাবীকে তার চলে না কারণ নিউ ইয়ার আর নববর্ষের মধ্যে রয়েছে অনেক খানি। পার্থক্য আমরা নববর্ষের দিন কে কেউ কাউকে ইংলিশে অনুবাদ অন করিনা নিউ ইয়ার বলে।

আমরা সকলেই বলি শুভ নববর্ষের শুভেচ্ছা। এবং এই দিনটি আমরা নতুন জামা পড়ে ঘরে কিংবা বাইরে অনুষ্ঠানটি সম্পন্ন করি খাওয়া-দাওয়ার মাঝে ঘুরে বেরিয়ে তবেই করোনার সময় ঘরে থাকাই শ্রেয় বাইরে বেরিয়ে নিজের অপরের ক্ষতি করে কোন লাভ নেই। এই নববর্ষে নতুন প্রয়াস নিন যে আপনি করোনার সাথে সুরক্ষিতভাবে মোকাবিলা করবেন এসব তো গেল এবার দেখে নেয়া যাক নববর্ষে কে কিরকম ভাবে সেজে উঠেছে।

সম্ভবত সবাই এই দিনটিতে পাঞ্জাবি ও শাড়ি পড়ে তবে কারো কারো কাজের চাপে তা হয়ে ওঠে না এই রীতি অনেকে মানে আবার অনেকে মানেন না সকলে যে শাড়ি পড়ে সেজে ওঠে তা নয় জারজের পোশাক পছন্দ শেষেই পোশাকে নিজেকে সুন্দর করে সাজিয়ে তোলে এবং খাওয়া-দাওয়ার মধ্যে দিয়ে এটি সম্পন্ন করে। এই দিন রাস্তাঘাটে প্রত্যেকটি অচেনা চেনার মুখে একটাই কথা শুভ নববর্ষের প্রীতি ও শুভেচ্ছা এবং আরেকটি জিনিস রয়েছে সাথে সেটি হল হালখাতা সত্যি খুদে বয়সে হালখাতার মজাটা ছিল অন্যরকম বাবা মায়ের হাত ধরে দোকানে যাওয়া সেই দোকানটাকে ভালো করে উপলব্ধি করা ও তারপর এক গ্লাস সরবত খেয়ে সেখানে মিষ্টির প্যাকেট নিয়ে বাড়িতে আসা এ সত্যিই এক নস্টালজিক অনুভূতি। প্রত্যেকেই নববর্ষের এই পর্যায়ে গুলো পালন করুন এবং তার সাথে পালন করুন কিছু নিষেধাজ্ঞা ও স্বাস্থ্যবান আপনাদের সকলের জীবন এনে দেবে হাজার হাজার নববর্ষ।

আরও পড়ুন:  পর্যাপ্ত ঘুমের অভাব যেসব রোগের ঝুঁকি বাড়ায়…

Featured article

%d bloggers like this: