33 C
Kolkata

Sweet doesn’t mean sugar:মিষ্টি মানেই ‘সুগার’ নয়

নিজস্ব প্রতিবেদন: অনেকের ধারণা থাকে মিষ্টি,শর্করাজাতীয় খাবার খেলেই ডায়াবেটিস অর্থাৎ সুগার হবেই। তবে তা কতোটা সত্য ? বিশেষজ্ঞরা এই ব্যাপারে কি বলছেন ? মূলত ডায়াবেটিস জনিত সমস্যায় ভোগে না এমন লোক খুবই কম আছে।তিরিশ চল্লিশের পর থেকে অনেকেই ডায়বেটিস থেকে বাঁচার জন্য মিষ্টি খাওয়াটাকে এড়িয়ে চলেন। যদিও সাবধান হওয়ায় ভালো ।কারণ শরীরের মধ্যে শর্করা বা গ্লুকোজের পরিমান বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে নানান রোগও শরীরে বাসা বাঁধতে শুরু করে।আর বর্তমানে মিষ্টিপানীয় থেকে,কেক-পেস্ট্রি, হেল্থড্রিংক সবকিছুতেই চিনির মাত্রাটাই অধিক বেশি পরিমানে থাকে। ডায়াবেটিস এমনি একটি অসুখ যার ভোগান্তি কম নয়।যা একবার হলে সারাজীবন তাকে টেনে বয়ে বেড়াতে হয়।

ডায়াবেটিস নামক এই জটিল বিপাকীয় রোগে ডাক্তার বারবার খাদ্যতালিকা থেকে মিষ্টিজাতীয় খাবার বাদ দেওয়ার কথা বলে থাকেন।রক্তে অতিরিক্ত গ্লুকোজের মাত্রা বৃদ্ধি পেলে নিয়মিত ইনসুলিনও নিতে হয়। এছাড়া স্বাভাবিক মাত্রার তুলনায় একটু বেশি গ্লুকোজের পরিমাণ হলে ওষুধের উপর রোগীকে ভরসা করে থাকতে হয়। সাথে সাথে তারপ্রিয় অনেক খাবারের বস্তু খাদ্যতালিকা থেকে বাতিল করা হয়। বিশেষ করে শর্করাজাতীয় খাদ্য। কারণ এই রোগে শরীর শর্করাকে ঠিকমতো কাজে লাগাতে পারে না ফলে শরীরে শর্করার পরিমাণ বাড়ে।

আরও পড়ুন:  Shivananda Baba: ১২৬ বছর বয়সেও 'স্বল্পাহার' সাধকের সুস্বাস্থ্যের মন্ত্র

আমাদের শরীরে অগ্ন্যাশয় থেকে ইনসুলিন হরমোন নিঃসৃত হয়।কারাের যদি ইনসুলিন হরমোন ক্ষরণ কম হয় তখন ডায়াবেটিস রোগ হয়। ইনসুলিন রক্তে শর্করার মাত্রা ঠিক রাখতে সাহায্য করে।তবে যাদের বর্ডারলাইন সুগার তারা অবশ্যই মিষ্টি -শর্করাজাতীয় খাবার পরিহার করুন। তার মানে চিনি, মিষ্টিজাতীয় জিনিস খেলেই যে সুগার হবে,তা কিন্তু না। তবে খাবার সব খাওয়াই ভালো,খাবারের পরিমান ও পুষ্টিগুণের ওপর শরীরের ভালো থাকা নির্ভর করে।

আরও পড়ুন:  BCCI : ভারতীয় দলের উপর নয়া ফতোয়া জারি করল বোর্ড

Featured article