24 C
Kolkata

Municipal Election: বিজেপি প্রার্থীরা নিরাপত্তা চেয়ে হাই কোর্ট এর কাছে আর্জি

নিজস্ব প্রতিবেদন : আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি রাজ্যের ১০৮ পুরসভায় ভোট। তার আগে বিভিন্ন জেলা থেকে বিরোধীরা হামলার অভিযোগ তুলেছেন বিজেপি প্রাথীরা। চার পুরনিগমের ভোটে কেন্দ্রীয় বাহিনীর দাবি জানিয়েছিল রাজ্যের বিরোধী দল বিজেপি। কিন্তু এই ব্যপারে হাইকোর্ট রাজ্য কমিশনকে সিদ্ধান্ত নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল। এই এবারেও ১০৮ পুরসভার ভোটে রইল একই নির্দেশ। আর এবার। কেন্দ্রীয় বাহিনীর প্রয়োজন আছে কি না, প্রয়োজন থাকলে কোথায় কোথায় কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হবে, সেই সিদ্ধান্ত নিতে বলা হয়েছে রাজ্য নির্বাচন কমিশনকেই।

কোথায় কেমন পরিস্থিতি জানতে হবে যে সব জেলায় ভোট রয়েছে, সেই জেলাগুলিতে কী পরিস্থিতি তা জেনে তবেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে।তবে এর পর বুধবার প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ নির্দেশ দেন কোথাও কোনও গণ্ডগোল হলে, তার দায় নিতে হবে কমিশনকেই। তার ডিভিশন বেঞ্চে চলছিল এই মামলার শুনানি। ডিভিশন বেঞ্চের নির্দেশে আরও বলা হয়েছে, যদি কেন্দ্রীয় বাহিনী না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় রাজ্য নির্বাচন কমিশন, তাহলে কেন দেওয়া হল, সেই কারণ আদালতে জানাতে হবে কমিশনারকে। আর তারপর যদি ভোটের দিন কোনও অশান্তির অভিযোগ ওঠে, তাহলে তার দায় নিতে হবে কমিশনারকেই।

আরও পড়ুন:  CPM: তারাদের দেশে মহম্মদ হোসেন খান


আদালতের নির্দেশ মেনে বৃহস্পতিবারই স্বরাষ্ট্র সচিবের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন নির্বাচন কমিশনার। প্রধান বিচারপতি বলেছিলেন, ‘কেন্দ্রীয় বাহিনী দেওয়া হলে অসুবিধা কোথায়? কোনও ক্ষতি তো নেই’ এই সো পর্যবেক্ষণ করেই বাহিনী নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে

এর আগেও বিধাননগর পুরনিগমের নির্বাচনের ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় বাহিনীর দাবি জানিয়েছিল বিজেপি। এবং সেই সময়েও বিষয়টি হাইকোর্ট পর্যন্ত গড়িয়েছিল। তখন রাজ্য নির্বাচন কমিশন হাইকোর্টের নির্দেশে ভোট প্রক্রিয়া যাতে শান্তিপূর্ণ হয়, তা নিশ্চিত করার দায়িত্ব নিয়েছিল।

Featured article

%d bloggers like this: