21 C
Kolkata

‘এই অঞ্চল মমতাময়ী অঞ্চল’: দাবি তৃণমূল প্রার্থীর

নিজস্ব সংবাদদাতা: হাতে আর অল্প কয়েকদিন। কারণ দোরগোড়ায় কড়া নাড়ছে পুরভোট। রাজনৈতিক দলগুলোর অন্দরে বর্তমানে প্রস্তুতি তুঙ্গে ১৯ ডিসেম্বর কলকাতা পুরভোটকে কেন্দ্র করে। ইতিমধ্যেই রাজনৈতিক দলগুলি প্রকাশ করে প্রার্থী তালিকা। এরই মাঝে মঙ্গলবার পুরভোটের আগেই ‘এই অঞ্চল মমতাময়ী অঞ্চল’ সাফ দাবি ৮৩ নং ওয়ার্ডের তৃণমূল প্রার্থী প্রবীর মুখোপাধ্যায়ের।

৮৩ নং ওয়ার্ডটির দীর্ঘদিনের কাউন্সিলার ছিলেন মঞ্জুশ্রী মজুমদার। যদিও পুরভোটেই ঘটল রদবদল। মঞ্জুশ্রী মজুমদারকে বদলে ৮৩ নং ওয়ার্ড থেকে তৃণমূলের প্রার্থী হয়েছেন প্রবীর মুখোপাধ্যায়। পুরভোটকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যেই প্রচার শুরু তৃণমূলের প্রার্থীর। এরই মাঝে মঙ্গলবার ৮৩ নং ওয়ার্ডের তৃণমূলের প্রার্থী প্রবীর মুখোপাধ্যায়কে ‘ key খবরের ‘ একান্ত সাক্ষাৎকারে প্রার্থী হয়ে কেমন লাগছে এই প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান, ‘আমি দলের কাজ করতে ভালবাসি।দীর্ঘদিন ধরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কাজ করেছি। প্রথম দিন থেকে যখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এমপি হননি তখন থেকে তার পরিবারের সঙ্গে যুক্ত। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাজ করতে আমার ভালো লাগে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাজ করতে একটা অনুভূতি লাগে।

মানুষের কাছে আরও বেশি বার্তা পৌঁছে দেওয়ার জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মনে করেছে আমাকে। আমি খুব আনন্দিত’। ৮৩ নং ওয়ার্ড থেকেই তৃণমূলের প্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে বিজেপির তরফে দাঁড়িয়েছে গৌরাঙ্গ সরকার। এই প্রসঙ্গে বিজেপিকে একহাত নিয়ে তৃণমূলের প্রার্থীর হুঙ্কার ‘বিজেপি যিনি প্রার্থী হয়েছেন তিনি নির্বাচনের প্রতিযোগিতা করতে পারলেও তাকে সারা বছর দেখা যায় না। ওনাকে মানুষ চেনেও না। আমার মনে হয় না ওনার পরিবারও তাকে চেনে না ‘। এরপরেই তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সুনাম করে প্রবীর মুখোপাধ্যায়ের সংযোজন, ‘সাধারণ মানুষের থেকে সম্পূর্ণ সাপোর্ট পাচ্ছি।প্রবীর মুখার্জি হিসাবে সাপোর্ট নয়,এই অঞ্চল মমতাময়ী অঞ্চল। আমফান থেকে যেকোনও দূর্যোগে আমরা সাধারণ মানুষের পাশে থাকি। আশাকরি মানুষ অতি উৎসাহের সঙ্গে এটা গ্রহণ করেছে’।

৮৩ নং ওয়ার্ডের দীর্ঘদিনের কাউন্সিলার ছিলেন মঞ্জুশ্রী মজুমদার। যদিও মঞ্জুশ্রী মজুমদারকে বদলে ৮৩ নং ওয়ার্ড থেকে প্রার্থী করা হয়েছে প্রবীর মুখোপাধ্যায়কে এই প্রসঙ্গে তৃণমূল প্রার্থীর মন্তব্য, ‘ ওনাকে আমি শ্রদ্ধা করি। ওনার হাসবেন্ড কাউন্সিলার ছিলেন। উনি অসুস্থ তাই হয়তো আমাকে করেছেন। ওনার আশীর্বাদ নিয়েu আমি নির্বাচনে নেমেছি’। মঞ্জুশ্রী মজুমদারের বকলমে তার ছেলে রাজা মজুমদার সাম্রাজ্য চালাত বলে অভিযোগ এই প্রসঙ্গে প্রবীর মুখোপাধ্যায়ের সাফ মন্তব্য, ‘দল জানে এই ব্যাপারে আমি কোনও কথা বলবো না’। সূত্র বলছে রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব দিলীপ মজুমদারের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ ব্যক্তি প্রবীর মুখোপাধ্যায় সেক্ষেত্রে কাউন্সিলালের টিকিটের জন্য এতদিন অপেক্ষা কেনও এই প্রশ্ন করা হলে তাঁর মন্তব্য, ‘ দল মনে করেনি তখন আমি উপযুক্ত ছিলাম। এখন দল মনে করছে আমি উপযুক্ত। তাই দল আমাকে টিকিট দিয়েছে’। এরপরেই ৮৪ নং ওয়ার্ডকে কাটমানি সাম্রাজ্য প্রসঙ্গে প্রবীর মুখোপাধ্যায়ের দাবি,’ মানুষ ব্যবসা করতে আসবে ব্যবসা করবে চলে যাবে। সেখানে কাঠ মানি দরকার নেই। মানুষ যদি কোনও অবৈধ নির্মাণ করে, যদি প্রোমোটার করে তাহলে তার বিরুদ্ধে আমি লড়ব। আমার কাছে প্রোমোটার নয় মানুষই বড়’।

Featured article

%d bloggers like this: