21 C
Kolkata

ATK MohunBagan : লিস্টন ঝড়ে উড়ে গেল বসুন্ধরা, ৪ গোলে বড়ো জয় বাগানের

নিজস্ব প্রতিবেদন: দুরন্ত প্রত্যাবর্তন বাগান ব্রিগেডের। প্রথম ম্যাচে লজ্জার হারের পর এএফসি কাপ গ্রুপ পর্বের দ্বিতীয় ম্যাচে ৪-০ গোলের ব্যবধানে বড়ো জয় পেল এটিকে মোহনবাগান। লিস্টন ঝড়ে উড়ে গেল বাংলাদেশের ক্লাব বসুন্ধরা কিংস। আবহাওয়ার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে মাঠেও ঝড় তুললেন লিস্টন কোলাসো। অন্যদিকে গোলের নিচে গোটা ম্যাচ জুড়ে অতন্দ্র প্রহরীর ভূমিকায় অর্শ আনোয়ার। শনিবার সল্টলেকের বিবেকানন্দ যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে এএফসি কাপের গ্রুপ পর্বের দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশের বসুন্ধরা কিংসের মুখোমুখি হয়েছিল এটিকে মোহনবাগান। এদিন মোহনবাগানের প্রথম একাদশে বেশ কয়েকটি পরিবর্তন করেছিলেন জুয়ান ফেরান্দো। অমরিন্দর সিং গত ম্যাচে ৪ গোল খাওয়ায় তার উপর ভরসা রাখেননি বাগান কোচ। তার পরিবর্তে বাগান গোল রক্ষার দায়িত্ব ছিল অর্শ আনোয়ারের কাঁধে। এছাড়াও তিরি ছিটকে যাওয়ায় প্রথম একাদশে ফেরেন সন্দেশ, পাশাপাশি দীপক টাঙড়িকে শুরু থেকে খেলান বাগান কোচ। তবে খেলা শুরু হওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই শুরু হয় তুমুল বৃষ্টি। ক্রমশ বাড়তে থাকে বৃষ্টির দাপট। সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে শুরু হয় ঝড়। বর্জ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টিতে দৃশ্যমান্যতা কমে যাওয়ার কারনে ১২ মিনিটের মাথায় সাময়িকভাবে খেলা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেন রেফারি। এরপর দীর্ঘ প্রায় ৫০ মিনিট খেলা বন্ধ থাকে। বৃষ্টি থামার পর পুনরায় খেলা শুরু করার সিদ্ধান্ত নেন রেফারি। পুনরায় মাঠে ফেরার পর থেকেই আক্রমণ শুরু করে বসুন্ধরা কিংস। ১৯ মিনিটে বসুন্ধরার ফ্রি কিক থেকে নেওয়া শট বারে লেগে ফিরে আসে৷ সবুজ নে শিবিরের ভাগ্য সুপ্রসন্ন না থাকলে লিড নিয়ে নিতেই পারতো বসুন্ধরা কিংস। ২১ মিনিটে আবারও বসুন্ধরা খেলোড়ের শট বাগান গোলরক্ষক অর্শ আনোয়ারের হাতে লেগে বার ছুঁয়ে ফিরে আসে। তবে ২৬ মিনিটে বসুন্ধরা রক্ষণের ভুলে লিড নেয়ে এটিকে মোহনবাগান। সবুজ মেরুনের হয়ে বল জালে জড়ান লিস্টন কোলাসো। এরপর ৩৪ মিনিটে থ্রু পাস থেকে আবারও বল পেয়ে যান সেই লিস্টন কোলাসো। সেখান থেকে একক দক্ষতায় বসুন্ধরা গোলরক্ষককে ডজ করে গোল করে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন লিস্টন। এরপর বেশ কয়েকটি সুযোগ তৈরি করলেও প্রথমার্ধে ব্যবধান কমাতে পারেনি বাংলাদেশের দলটি। কাজেই ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে প্রথমার্ধে মাঠ ছাড়ে এটিকে মোহনবাগান।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেও আক্রমণ জারি রেখেছিল সবুজ মেরুন ব্রিগেড। ৫৩ মিনিটে বসুন্ধরা খেলোয়ার খালিদের পা থেকে বল কেড়ে নেন মনবীর সিং। বক্সের মধ্যে থাকা লিস্টন কোলাসোকে ঠিকানা লেখা পাস বাড়ান তিনি। সেখান থেকে বল জালে জড়াতে ভুল করেননি লিস্টন। সেই সঙ্গে বাগান ব্রিগেডকে ৩ গোলে এগিয়ে দেওয়ার পাশাপাশি নিজের হ্যাটট্রিকটিও পূরণ করেন লিস্টন কোলাসো। ৬৫ মিনিটে নিজের এবং দলের চতুর্থ গোলটি করার সহজ সুযোগ নষ্ট করেন সেই লিস্টন কোলাসো। ৭৭ মিনিটে শুভাশীষ বসুর পাস থেকে ব্যবধান ৪-০ করেন পরিবর্ত হিসেবে নামা ডেভিড উইলিয়ামস। এরপরই বাগান জার্সিতে অভিষেক হল সদ্য সমাপ্ত সন্তোষ ট্রফিতে বাংলার হয়ে দুরন্ত ফুটবল খেলা ফারদিন আলি মোল্লা। পরিবর্ত খেলোয়াড় হিসেবে মাঠে নামেন তিনি। এরপর ৮৫ মিনিটে আরও একটি সুযোগ তৈরি হয়েছিল। কিন্তু গোল রক্ষককে একা পেয়েও বল জালে জড়াতে ব্যর্থ হন আরেক পরিবর্ত খেলোয়াড় রবি বাহাদুর রানা। তবে এদিন গোলপোস্টের তলায় অনবদ্য অর্শ আনোয়ার। খেলার ৯০ মিনিটে বসুন্ধরা কিংসের একের পর এক শট রক্ষা করেন তিনি। শেষ পর্যন্ত ৪-০ ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে এটিকে মোহনবাগান।

আরও পড়ুন:  Mamata Banerjee: মুখ্যমন্ত্রীকে ডিলিট, উপস্থিত রাজ্যপাল

Featured article

%d bloggers like this: