18 C
Kolkata

Barcelona : ইউরোপা লিগ থেকেও বিদায় বার্সেলোনার

নিজস্ব প্রতিবেদন: বার্সেলোনাকে হারিয়ে ইউরোপা লিগের শেষ চারে ফ্রাঙ্কফুর্ট। সেই সঙ্গে ঘরের মাঠে হেরে ইউরোপা লিগ থেকে বিদায় নিল কাতালান জায়ান্টসরা। মরসুমের মাঝে দায়িত্ব নিয়ে বার্সার খোলনলচে বদলে দিয়েছেন জাভি হার্নান্দেজ। বার্সা ফিরেছিল নিজের ছন্দে। সমস্ত প্রতিযোগিতা মিলিয়ে টানা ১৫ ম্যাচ অপরাজিত ছিল বার্সা ব্রিগেড। কিন্তু এদিন যেন খেই হারিয়ে ফেললো। গোটা ম্যাচে ৯০ মিনিট পিছিয়ে রইল ০-৩ গোলে। অতিরিক্ত সময়ে দুটি গোল পরিশোধ করলেও তখন অনেক দেরি হয়ে গেছে।

নিজেদের ঘরের মাঠে এদিন বল দখলে নিজেদের আধিপত্য বিস্তার করলেও আক্রমণে তেমন ধার ছিল না কাতালানদের। ফ্রাঙ্কফুর্টের রক্ষণ ভাঙত কালঘাম ছুটে গেল জাভির ছেলেদের। অন্যদিকে বার্সার দুর্গ ভেঙে এক এক করে তিনটি গোল করে যায় ফ্রাঙ্কফুর্ট। ম্যাচ শুরুর চার মিনিটের মধ্যে পেনাল্টি থেকে ফ্রাঙ্কফুর্টকে এগিয়ে দেন ফিলিপ কোস্তিচ। অন্যদিকে প্রথমার্ধে বেশ কয়েকটি সুযোগ হাতছাড়া করে বার্সেলোনা। পাল্টা আক্রমণে ব্যবধান বাড়ান রাফায়েল সান্তোস বোরে মাউরি।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই গোল পরিশোধ করতে মরিয়া হয়ে ওঠে বার্সেলোনা। সুযোগও তৈরি করে বেশ কয়েকটি। কিন্তু গোলের দরজা খুলতে ব্যর্থ হয়। উল্টে ৬৭ মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোলে স্কোরলাইন ৩-০ করে কোস্তিচ। শেষ হয়ে যায় বার্সেলোনার ঘুরে দাঁড়ানোর মরিয়া প্রচেষ্টা। তবে হাল ছাড়েনি বার্সার ছেলেরা। ৮৪ মিনিটে সের্জিও বুস্কেটসের গোল অফসাইডের কারণে বাতিল করেন রেফারি। তবে ৯ মিনিটের অতিরিক্ত সময়ের প্রথম মিনিটে গোল করেন বুস্কেটস। অতিরিক্ত সময়ের শেষ মুহূর্তে লুক ডি ইয়ংকে ফাউল করে লাল কার্ড দেখেন এভান নিদিকা। পেনাল্টি পায় বার্সেলোনা। পেনাল্টি থেকে মেমফিস ডিপে আরও একটি গোল করলেও তখন ম্যাচে ফেরার আর কোনও সুযোগ ছিলনা। প্রথম লেগে ১-১ গোলে ড্র হওয়ায়। এদিনের জয়ে ৪-৩ ব্যবধানে সেমিফাইনালে পৌঁছে গেল ফ্রাঙ্কফুর্ট। সেই সঙ্গে চলতি মরসুমে একমাত্র শিরোপা জয়ের আশাও শেষ হয়ে গেল বার্সেলোনার।

আরও পড়ুন:  Croatia vs Belgium : ক্রোটদের বিরুদ্ধে আজ শেষ ষোলোয় ওঠার লড়াইয়ে নামছে বেলজিয়াম

Featured article

%d bloggers like this: