24 C
Kolkata

Football Camp : রায়গঞ্জে প্রাক্তন ফুটবলার দীপক মন্ডলের অধিনে শুরু ফুটবল কোচিং ক্যাম্প

নিজস্ব প্রতিবেদন: শুরু হল ‘ওরিয়েন্ট রায়গঞ্জ ইনস্টিটিউট ফুটবল কোচিং ক‍্যাম্প’-এর পথ চলা। গত ডিসেম্বর মাসে রায়গঞ্জ টাউন ক্লাবের একটি ফুটবল টুর্নামেন্টে গিয়েছিলেন প্রাক্তন ভারতীয় ফুটবলার ও “অর্জুন” পুরস্কার প্রাপ্ত দীপক মন্ডল। সেখানকার ফুটবল উন্মাদনা দেখে মুগ্ধ হয়েছিলেন তিনি। তখনই টাউন ক্লাবের সঙ্গে ফুটবল কোচিং ক‍্যাম্পে ফুটবল প্রশিক্ষণ দেওয়ার ব‍্যাপারে কথা হয়েছিল তার। অবশেষে মঙ্গলবার রায়গঞ্জের বিখ‍্যাত টাউন ক্লাবের মাঠে “ওরিয়েন্ট রায়গঞ্জ ইনস্টিটিউট ফুটবল কোচিং ক‍্যাম্প”-এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হয়ে গেল। পুরোহিত দিয়ে পুজো করে এই অ‍্যাকাডেমির উদ্বোধন করা হয়। পাঁচ জন সাপোর্ট স্টাফ নিয়ে কাজ শুরু করে দিলেন প্রাক্তন ফুটবলার দীপক মন্ডল। এই ক‍্যাম্প আবাশিক। শুধু রায়গঞ্জ নয়, শহরের বাইরে থেকেও একাধিক ছেলে-মেয়ে এই ক‍্যাম্পে যোগ দিয়েছেন।

এদিন অ্যাকাডেমির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রায়গঞ্জ পুরসভার চেয়ারম‍্যান সন্দীপ বিশ্বাস। এই ক‍্যাম্পের সঙ্গে দীর্ঘমেয়াদী চুক্তি করেছে রায়গঞ্জের “ওরিয়েন্ট জুয়েলারি”। জেলায় জেলায় বহু ফুটবল ক‍্যাম্প থাকলেও স্পনসরের অভাবে তা বন্ধ হয়ে যায়। সেই জায়গায় থেকে “ওরিয়েন্ট জুয়েলারি”-এর একটা ফুটবল ক‍্যাম্পের স্পনসর হিসেবে এগিয়ে আসায় বাংলার ফুটবল উপকৃত হবে বলেই মনে করছে ক্রীড়া মহল। একই সঙ্গে এই রায়গঞ্জ ইনস্টিটিউটের ফুটবল অ‍্যাকাডেমির সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধল কলকাতার প্রাচীন ক্লাব জর্জ টেলিগ্রাফ স্পোর্টস ক্লাব।

আরও পড়ুন:  Ibrahim-Kajol: ইব্রাহিমের ডেবিও ছবির নায়িকা কাজল?

এই অ‍্যাকাডেমির প্রধান কোচ দীপক মন্ডল একটা সময় টানা ১২ বছর ভারতীয় দলে খেলেছেন। তিনি আসলে টিএফএ থেকে উঠে এসেছেন। পরবর্তীকালে জেসিটি, ইস্টবেঙ্গল,মাহিন্দ্রা, মোহনবাগান,কেরল ব্লাস্টারের মতো ক্লাবে চুটিয়ে খেলেছেন। কি খবর’কে দেওয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে দীপক মন্ডল জানিয়েছেন, “খেলা ছাড়ার পর থেকেই আমার লক্ষ্য ছিল কোচিং করানো। আমার নিজস্ব একটি অ্যাকাডেমি’ও আছে। এখানে প্রথমদিনেই প্রায় ৬০-৭০ জন শিক্ষার্থী ক্যাম্পে যোগ দিয়েছে। পরবর্তীতে আরও ছেলে-মেয়ে ক্যাম্পে যোগ দেবে বলে আমি আশাবাদী। আমার লক্ষ্য এখান থেকে বেশ কিছু ফুটবলার’কে তুলে কলকাতার ভাল ক্লাব বা দেশের আরও ভাল অ‍্যাকাডেমিতে সুযোগ তৈরি করে দেওয়া। এখানে বেশ কিছু ভালো প্রতিভা আছে। ভালো গ্রুমিং পেলে এরা ভালো খেলবে। আগে এই যায়গা থেকে ভালো ফুটবলার’রা ভালো ক্লাবে খেললেও, বেশ কয়েকবছর এখান থেকে ভালো ফুটবলার ওঠেনি। এখন দেখা যাক কতদুর এগিয়ে যেতে পারি।”

আরও পড়ুন:  Aindrila Sharma: জ্ঞান ফিরেছিল ঐন্দ্রিলার

Featured article

%d bloggers like this: