34 C
Kolkata

KKR IPL : তীরে এসে তরি ডুবল কলকাতার, হার দিয়ে আইপিএল ২০২২-এর যাত্রা শেষ নাইট বাহিনীর

মুম্বই: মরণ বাচন ম্যাচে লখনউয়ের কাছে হার কলকাতার। দুর্দান্ত লড়াই করেও শেষ রক্ষা হলনা। তীরে এসে তরি ডুবল শাহরুখ খানের দলের। এদিন টস জিতে ব্যাট করতে নেমে একটু সাবধানী ক্রিকেট খেলেন লখনউ সুপার জায়ান্টসের দুই ওপেনাপ কেএল রাহুল ও কুইন্টন ডিকক। নিজেদের অর্ধশতরানের পার্টনারশিপ পূরণ করেন দুই তারকা। প্রথম ১০ ওভারে কোনও উইকেট নিতে পারেনি কেকেআর। এরপর নিজের অর্ধশতরান পূরণ করেন কুইন্টন ডিকক। নিজেদের শতরানের পার্টনারশিপও পূরণ করেন ডিকক ও রাহুল জুটি। নিজেদের মধ্যে ১৫০ রানের রেকর্ড পার্টনারশিপও পূরণ করেন কুইন্টন ডিকক ও কেএল রাহুল। তারপরই নিজের শতরান পূরণ করেন ডিকক। ৫৯ বলে করেন সেঞ্চুরি। শেষের দিকে রাহুল ও ডিকক আরও ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠেন। ১৯ তম ওভারে টিম সাউিদর ওভারে একটি ছয় মারেন কেএল রাহল ও ৩টি ছয় মারেন ডিকক। ওভারে আসে ২৭ রান। শেষ ওভারে ওপেনিং জুটিতে দুশো রানের পার্টনারশিপ পূরণ করেন রাহুল ও ডিকক। যা আইপিএলের ইতিহাসে প্রথম বার। শেষ পর্যন্ত ২০ ওভারে বিনা উইকেটে ২১০ রানে থামল লখনউ সুপার জায়ান্টস। ১৪০ রানের ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন কুইন্টন ডিকক ও ৬৮ রান করে অপরজিত থাকেন কেএল রাহুল। নির্ধারিত ২০ ওভারে ১১০ রান তোলে লখনউ।

আরও পড়ুন:  Tonushree: বলিউডে তনুশ্রী
আরও পড়ুন:  Rugby : চল্লিশের দোরগোড়ায় রাগবি খেলার মধ্যে দিয়েই বাংলার মেয়েদের জন্য লড়ছেন প্রিয়াঙ্কা চোধুরী

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় কলকাতা নাইট রাইডার্স। ০ রানে আউট হন ভেঙ্কটেশ আইয়ার। মাত্র ৪ রান করেন অভিজিৎ তোমর। এরপর ২২ বলে ৪২ রানের ইনিংস খেলে কলকাতাকে বেশ কিছুটা এগিয়ে দেন নীতীশ রানা। ব্যাট হাতে অর্ধশতরান করেন শ্রেয়স আইয়ার। ২৯ বলে ৫০ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন শ্রেয়স। এরপর স্যাম বিলিংস ৩৬ রানের সুন্দর ইনিংস খেলে আউট হন। তবে এদিন ব্যাট হাতে চূড়ান্ত ব্যার্থ আন্দ্রে রাসেল। শেষে রিঙ্কু সিং (১৫ বলে ৪০) ও সুনিল নারিন (৭ বলে ২১) জ্বলে উঠলেও শেষ রক্ষা হয়নি। ২ বলে বাকি ছিল ৩ রান। সেই সময় আউট হয়ে যান রিঙ্কু। সেখানেই কেকেআরের জয়ের আশা কার্যত শেষ হয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত মাত্র ২ রানে হারের মুখ দেখতে হল কলকাতা নাইট রাইডার্সকে।

আরও পড়ুন:  East Bengal : ইমামির সঙ্গে বৈঠকে বসবে লাল হলুদ

Featured article