22 C
Kolkata

বেঙ্গালুরুকে হারাল এটিকে মোহনবাগান

নিজস্ব সংবাদদাতা : ফতোরদা স্টেডিয়ামে এটিকে মোহনবাগান বনাম বেঙ্গালুরু এফসি-র লড়াই জমে উঠেছিল। আর সেই লড়াইয়ে ডেভিড উইলিয়ামসের গোলে সুনীলদের অপরাজিত দৌড় থামিয়ে দিল হাবাসের সবুজ-মেরুন ব্রিগেড। এফসি গোয়ার পর বেঙ্গালুরু এফসি বধ।

আইএসএলে পর পর দুই ম্যাচে জয় পেল এটিকে মোহনবাগান।ম্যাচে প্রথম থেকে দাপট অব্যাহত থাকে এটিকে মোহনবাগনের। বেঙ্গালুরু এফসি-র গোলমুখে একের পর এক আক্রমণ তুলে আনতে থাকেন সবুজ-মেরুন ফুটবলাররা। রয় কৃষ্ণ, ডেভিড উইলিয়ামস ও মনবীর সিংয়ের মধ্যে দুর্দান্ত বোঝাপড়া নজরে পড়ে।

পিছন থেকে এটিকে মোহনবাগানের একের পর আক্রমণের সূত্র তৈরি করতে থাকেন কার্ল ম্যাকহুগ ও এডু গার্সিয়া। বেঙ্গালুরু এফসি-র শক্তিশালী ডিফেন্সকে হারিয়ে বেশ কয়েকবার গোলের কাছে পৌঁছে যায় কলকাতা। প্রতি-আক্রমণে বেশ কয়েকবার এটিকে মোহনবাগান ডিফেন্সকে চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলে দেন সুনীল ছেত্রীরা।

আরও পড়ুন:  Mysterious Temples: মহাদেবকে পুজো দিলেই হয় আলাদা অনুভূতি, মনস্কামনা পূরণে যান রহস্যময় কৈলাস মন্দিরে

নিয়ম মেনে ৩০ মিনিটের মাথায় ম্যাচে সাময়িক বিরতি ঘোষণা করেন রেফারি। খেলা চালু হতেই ফের আক্রমণে ঝাঁপায় এটিকে মোহনবাগান। ৩৩ মিনিটের মাথায় বেঙ্গালুরু এফসি-র বক্সের বাইরে ফাঁকায় বল পেয়ে যান ডেভিড উইলিয়ামস। কেটে ভিতরে ঢুকে দূর থেকেই শট মারেন অজি স্ট্রাইকার।

বাঁ-দিকে ঝাঁপিয়ে গোল বাঁচাতে পারেননি গুরপ্রীত সান্ধু।দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে কয়েক মিনিট দেখে নিয়ে বেঙ্গালুরু কোচ একসঙ্গে তিনটে পরিবর্তন করলেন। হাবাস শেষদিকে জয়েস এবং প্রবীরকে নামালেন। দ্বিতীয়ার্ধে বলের দখল বেঙ্গালুরুর বেশি রাখলেও ফাইনাল থার্ড অঞ্চলে বেশি জায়গা দিচ্ছিলেন না সন্দেশ, তিরি, প্রীতমরা।

তবে গোলের সামনে মাথা ঠান্ডা রাখতে পারলে মনবীর এদিন গোল পেতে পারতেন। তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে নষ্ট করলেন সেই সুযোগ। তবে মোহনবাগান সমর্থকদের আশ্বস্ত করলেন এডু গার্সিয়া। অনেকদিন পর চেনা ছন্দে দেখা গেল স্পানিশ ফুটবলারকে। বল হোল্ড করলেন, পাস বাড়ালেন, প্রয়োজনের নীচে নেমে ডিফেন্সকে সাহায্য করলেন।

আরও পড়ুন:  Accident:সিংহের কবল থেকে মৃত্যুঞ্জয়ী জাহিদ !

নিজেদের ট্যাকটিক্যাল ফুটবলে সফল এটিকে মোহনবাগান।৭ ম্যাচ শেষে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে এটিকে মোহনবাগান। অন্যদিকে ৭ ম্যাচ শেষে বেঙ্গালুরু এফসি-র পয়েন্ট ১২, লিগ তালিকায় স্থান তৃতীয়। চলতি মরসুমে আইএসএলে প্রথম হারের মুখ দেখল সুনীলরা।

Featured article

%d bloggers like this: