18 C
Kolkata

নতুন পলক রোনাল্ডোর

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ রেকর্ড হয়ত তাঁর জন্যই অপেক্ষা করে থাকে সবসময়। ক্লাব কিংবা দেশ যে জার্সিতেই হোক না কেন। তাঁর নাম ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো।

২০২১ সালেও রমরমিয়ে চলছে এই পর্তুগিজ গোলমেশিন। বিশ্বকাপের বাছাই পর্বের ম্যাচে আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে শেষ মুহূর্তে জোড়া গোল করেছেন তিনি। এই জোড়া গোলের সুবাদে আন্তর্জাতিক ফুটবলে সর্বোচ্চ গোলদাতার তকমাও পেয়ে গিয়েছেন সিআর সেভেন।। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বের ম্যাচে ওয়েস্ট হাম ইউনাইটেডের বিরুদ্ধে জয়সূচক গোল করে আর এক তারকা ইব্রাহিমোভিচের রেকর্ডও ভেঙে দেন পর্তুগিজ গোল মেশিন। এরপর এখানেই থেমে থাকেননি তিনি। গড়লেন আরও একটি রেকর্ড। ৬৬ টি ভিন্ন ভিন্ন স্টেডিয়ামে গোল করার রেকর্ড এই মুহূর্তে একমাত্র রয়েছে তাঁর ঝুলিতেই।

এরপর পাঁচ বারের ব্যালন ডি’অর জয়ী নিজের নামের সঙ্গে যোগ করে নিলেন নিলেন আরও একটি রেকর্ড। সার্জিও রামোসকে পেছনে ফেলে রোনাল্ডো গড়লেন আন্তর্জাতিক ফুটবলে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার নজির। প্রসঙ্গত, গত শনিবার বিশ্বকাপের আয়োজক কাতারের বিরুদ্ধে খেলা ছিল ইউসোবিওর দেশের । জাতীয় দলের জার্সিতে এটি ছিল রোনাল্ডোর ১৮১তম ম্যাচ। এতদিন আন্তর্জাতিক ফুটবলে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার রেকর্ড ছিল স্প্যানিশ তারকা সার্জিও রামোসের দখলে। রামোস দেশের জার্সিতে এখনও পর্যন্ত ১৮০টি ম্যাচ খেলেছেন। শনিবার কাতারের বিরুদ্ধে মাঠে নামার সঙ্গে সঙ্গে স্প্যানিশ ডিফেন্ডারকেও পেছনে ফেলে দিলেন সিআর সেভেন।

উল্লেখ্য, কাতারের বিরুদ্ধে ৩-০ গোলে ম্যাচটি যেতে পর্তুগাল। ম্যাচের ৩৭ মিনিটে দুরন্ত এক গোলে পর্তুগালকে প্রথম এগিয়ে দেন রোনাল্ডোই। আন্তর্জাতিক ফুটবলে আগেই পেছনে ফেলেছেন আলি দাইকে । এবার কাতারের বিরুদ্ধে ম্যাচে ১১২ তম গোলটি করে সংখ্যাটা আরও একধাপ বাড়িয়ে নিলেন ৩৬ বছরের বর্ষীয় এই ম্যানইউ মহাতারকা। রোনাল্ডো নতুন কীর্তি রচনা করার পর পরই পর্তুগাল এবং তাঁর বর্তমান ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ট্যুইট করে শুভেচ্ছা জানায় সিআর সেভেনকে ।

আরও পড়ুন:  Brazil : ক্যামেরুন ম্যাচের আগে আতঙ্ক ব্রাজিল শিবিরে

Featured article

%d bloggers like this: